বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > মণীশ খুনে CBI তদন্তে চেয়ে বুধবার কলকাতা হাইকোর্টে BJP
মণীশ শুক্লার খুনের পর উত্তর ২৪ পরগনায় পুলিশ (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
মণীশ শুক্লার খুনের পর উত্তর ২৪ পরগনায় পুলিশ (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

মণীশ খুনে CBI তদন্তে চেয়ে বুধবার কলকাতা হাইকোর্টে BJP

  • মণীশ খুনের মামলায় এক ধৃত মহম্মদ খুরামের সঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের যোগ প্রমাণে একাধিক পুরনো ছবি দেখান অর্জুন।

মণীশ শুক্লার খুনের ঘটনায় প্রথম থেকেই সিবিআই তদন্তের দাবি জানানো হচ্ছিল। এবার কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার তদন্তের আর্জি জানিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে যাচ্ছে বিজেপি। এমনটাই জানিয়েছেন ব্যারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিং।

মঙ্গলবার অর্জুন অভিযোগ করেন, খুনের মামলায় তদন্তভার সিআইডির হাতে গেলেও সিআইডির অফিসাররাও ষড়যন্ত্রে সামিল ছিলেন। তিনি বলেন, ‘রবিবার কলকাতার ভবানী ভবনে সিআইডির সদর দফতর থেকে মণীশের গতিবিধির উপর যে নজর রাখা হচ্ছিল, সেই প্রমাণ আমাদের কাছে আছে। কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার (সিবিআই) তদন্তের আর্জি জানিয়ে আমরা বুধবার কলকাতা হাইকোর্টে যাব।’  

যদিও সোমবার রাজ্য পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, ব্যক্তিগত শত্রুতার দিকটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে প্রভাবশালী লোকজনরাও যে জড়িত থাকতে পারেন, সেই সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে না বলে ‘হিন্দুস্তান টাইমস’-কে জানিয়েছেন এক আধিকারিক। যিনি নাম প্রকাশ করতে চাননি।

অন্যদিকে, মণীশ খুনের মামলায় এক ধৃত মহম্মদ খুরামের সঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের যোগ প্রমাণে একাধিক পুরনো ছবি দেখান অর্জুন। কোনও ছবিতে খুরামকে ব্রাত্য বসুর সঙ্গে, কোথাও আবার মদন মিত্র এবং পানিহাটির বিধায়ক নির্মল দাসের সঙ্গে দেখা গিয়েছে। সেই ছবির সত্যতা অবশ্য যাচাই করেনি  ‘হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা’। বিষয়টি নিয়ে ব্রাত্য ও মদনের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাঁদের প্রতিক্রিয়া মেলেনি। তবে খুরামের সঙ্গে তাঁর কোনও যোগ ছিল না বলে দাবি করেছেন পানিহাটির বিধায়ক।

তারইমধ্যে মঙ্গলবার দুপুরে খুরাম এবং শেখ গুলামের হয়ে কোনও আইনজীবী সওয়াল করেননি। ভবিষ্যতেও কোনও আইনজীবী যেন ধৃতদের হয়ে সওয়াল না করেন, সেই আর্জিও করা হয়েছে বার অ্যাসোসিয়েশনের তরফে।

বন্ধ করুন