হাবরা থানা। ফাইল ছবি
হাবরা থানা। ফাইল ছবি

হাবরায় BJP কর্মীদের বিরুদ্ধে NRC-র নথি দেখতে চাওয়ার অভিযোগ, গ্রেফতার ১

  • এই ঘটনা নিয়ে বুধবার বাঁকুড়ার প্রশাসনিক বৈঠকে সরব হন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

হাবরায় NRC-র নথি দেখতে চাওয়ার অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে। ব্যবসায়ীর দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতে ১ বিজেপি কর্মীকে গ্রেফতার করল পুলিশ। বিজেপির পালটা দাবি, কারও কাছে কোনও নথি দেখতে চাননি বিজেপি কর্মীরা। CAA-র সমর্থনে লিফলেট বিলি করছিলেন তাঁরা।

অভিযোগ, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় হাবরার এক স্বর্ণব্যবসায়ীর কাছে যান জনা ১৫ বিজেপি সমর্থক। তাঁর কাছে CAA সংক্রান্ত নথি দেখতে চান বলে দাবি ব্যবসায়ীর। তিনি নথি দেখাতে অস্বীকার করলে বিজেপি কর্মীদের সঙ্গে তাঁর ধাক্কাধাক্কি হয়। এর পর হাবরা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন তিনি।

এই ঘটনা নিয়ে বুধবার বাঁকুড়ার প্রশাসনিক বৈঠকে সরব হন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর দাবি, ওই ব্যবসায়ীর কাছে CAA সংক্রান্ত নথি দেখতে চেয়েছেন বিজেপি কর্মীরা। মুখ্যমন্ত্রী পর্যন্ত ব্যাপারটা পৌঁছেছে শুনেই এর পরই সক্রিয় হয়ে ওঠে হাবরা থানার পুলিশ। গ্রেফতার করা হয় বাসু রায় নামে এক বিজেপি কর্মীকে। তাঁকে জেরা করে ঘটনায় জড়িত বাকিদের খোঁজ পাওয়ার চেষ্টা করছেন তদন্তকারীরা।

স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দিল্লিতে কেজরিওয়ালের জয় উজ্জাপনের জন্য হাবরা বাজারে মিছিল বার করে তৃণমূল। পালটা কর্মীদের নিয়ে দোকানিদের কাছে প্রচারে নামে বিজেপি। ব্যবসায়ীদের লিফলেট বিলি করছিলেন তাঁরা। তখনই এক দোকানদার, বিজেপি কর্মীদের সামনে CAA ও NRC-র বিরোধিতা করেন। এই নিয়ে দুপক্ষের বচসা শুরু হয়। এরই মধ্যে এক বিজেপি কর্মী ওই দোকানিকে ঘুসি মারেন। গণ্ডগোল চরমে পৌঁছয়। স্থানীয় ব্যবসায়ীরা এসে দুপক্ষের মধ্যে মিটমাট করান। এর পর রাতে থানায় গিয়ে বিজেপি কর্মীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে তৃণমূল।

বিজেপির দাবি, ব্যবসায়ীকে দিয়ে ভুয়ো অভিযোগ দায়ের করেছে তৃণমূল। মঙ্গলবার বিকেলে হাবরা বাজারে CAA-র সমর্থনে প্রচার করছিলেন বিজেপি কর্মীরা। বিভিন্ন দোকানে গিয়ে ব্যবসায়ীদের লিফলেট বিলি করছিলেন তাঁরা। তখনই এক ব্যবসায়ীর সঙ্গে গোলমাল বাধে। এর সঙ্গে CAA সংক্রান্ত নথির কোনও সম্পর্ক নেই।


বন্ধ করুন