বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বীরভূমে বিজেপি সমর্থকের রহস্যমৃত্যু, ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার বাড়ির কাছেই
বিজেপি সমর্থকের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়েছে।

বীরভূমে বিজেপি সমর্থকের রহস্যমৃত্যু, ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার বাড়ির কাছেই

  • আজ, মঙ্গলবার সকালে গ্রামের বাইরে পুকুরের ধারে তাঁর ঝুলন্ত দেহ দেখতে পাওয়া যায়।

বীরভূমের মল্লারপুরে বিজেপি সমর্থকের রহস্যমৃত্যু নিয়ে শোরগোল পড়েছে। গ্রামের বাইরে গাছে ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়েছে বিজেপি সমর্থকের। মল্লারপুরের বড় তুড়িগ্রামের বাসিন্দা ছিলেন পূর্ণচন্দ্র লাহা। তাঁরই ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়েছে। এটা আত্মহত্যা নাকি খুন তা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। এলাকায় তিনি বিজেপি সমর্থক বলেই পরিচিত ছিলেন।

ঠিক কী জানাচ্ছে পরিবার?‌ পরিবার সূত্রে খবর, এক আত্মীয় সুদে টাকা ধার করে পালিয়ে যাওয়ায় দু’‌মাস আগে বিজেপি সমর্থককে হুমকি দেয় পাওনাদার। কারণ এই ধার পর্বে তিনি ছিলেন গ্যারান্টার। এই হুমকি নিয়ে মল্লারপুর থানায় অভিযোগও দায়ের হয়। সোমবার সন্ধ্যেবেলায় বাড়ি থেকে বেরিয়ে এলাকায় যান ওই বিজেপি সমর্থক। আর আজ, মঙ্গলবার সকালে গ্রামের বাইরে পুকুরের ধারে তাঁর ঝুলন্ত দেহ দেখতে পাওয়া যায়। পাওনাদারই খুন করে ঝুলিয়ে দিয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, মৃতের নাম পূর্ণ চন্দ্র লাহা। বীরভূমের মল্লারপুর থানার বড় তুড়িগ্রামের বাসিন্দা। পূর্ণ চন্দ্র লাহা বিজেপি সমর্থক ছিলেন। সোমবার সকালে বাড়ির সামনে একটি গাছ থেকে তাঁর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়েছে। তাঁর পরিবার এটাকে খুন বলে অভিযোগ দায়ের করেছেন। তবে আত্মহত্যার সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। দেহটি ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে।

সূত্রের খবর, খুন হলে তার পিছনে রাজনৈতিক কারণ থাকে। এখানে সেভাবে তা দেখতে পাচ্ছেন না পুলিশ। টাকা লেনদেন সংক্রান্ত তথ্যই জোরালো হচ্ছে। পূর্ণ চন্দ্র লাহার সঙ্গে কারও শত্রুতা ছিল কিনা তা খতিয়ে দেখছে মল্লারপুর থানার পুলিশ। কে এই পাওনাদার?‌ তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সন্ধ্যের সময় কোথায় তিনি গিয়েছিলেন?‌ তা জানার চেষ্টা করা হচ্ছে।

বন্ধ করুন