বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > আবার বিজেপি কর্মীর রহস্যমৃত্যু, ময়নায় সেতুর নীচ থেকে উদ্ধার দেহ
উদ্ধার হল বিজেপি কর্মীর রক্তাক্ত দেহ। (HT_PRINT)
উদ্ধার হল বিজেপি কর্মীর রক্তাক্ত দেহ। (HT_PRINT)

আবার বিজেপি কর্মীর রহস্যমৃত্যু, ময়নায় সেতুর নীচ থেকে উদ্ধার দেহ

  • পরিবারের পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছে, বিজেপি করার জন্য কৃষ্ণ পাত্রকে খুন করা হয়েছে। পুলিশ দেহ ময়নাতদন্তে পাঠিয়ে দিয়েছে। আর এই ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে। কী করে এখানে তার দেহ এল?‌ কারা মেরেছে বিজেপি কর্মীকে?‌ কোথায় গিয়েছিলেন এই যুবক?‌ এইসব প্রশ্ন খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

সবে কাশীপুরের জট কেটেছে। তার মধ্যেই আবার বিজেপি কর্মীর রহস্যমৃত্যু ঘটল পূর্ব মেদিনীপুরের ময়না থানা এলাকায়। এমনকী ময়নাগুড়ির পিড়খালি সেতুর কাছ থেকে উদ্ধার হল বিজেপি কর্মীর রক্তাক্ত দেহ। দেহটি উদ্ধার করে পুলিশ ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে। খুনের কারণ জানার চেষ্টা করছে তদন্তকারীরা। বিজেপির দাবি, খুন করা হয়েছে তাদের যুবকর্মীকে।

ঠিক কী ঘটেছে ময়নায়?‌ স্থানীয় সূত্রে খবর, মৃত বিজেপি যুবকর্মীর নাম কৃষ্ণ পাত্র। পূর্ব মেদিনীপুরের ময়না থানার বাকচা গ্রাম পঞ্চায়েতের বাসিন্দা। বিজেপি কর্মী হিসেবে এলাকায় কাজ করতেন। পুরসভা নির্বাচনে সক্রিয়ভাবে কাজ করেছিলেন। মঙ্গলবার থেকে বেপাত্তা ছিলেন বিজেপি কর্মী কৃষ্ণ। আর বুধবার সকালে পিড়খালি সেতুর কাছ থেকে উদ্ধার হয় কৃষ্ণর রক্তাক্ত দেহ।

ঠিক কী জানা যাচ্ছে?‌ পরিবারের পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছে, বিজেপি করার জন্য কৃষ্ণ পাত্রকে খুন করা হয়েছে। পুলিশ দেহ ময়নাতদন্তে পাঠিয়ে দিয়েছে। আর এই ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে। কী করে এখানে তার দেহ এল?‌ কারা মেরেছে বিজেপি কর্মীকে?‌ কোথায় গিয়েছিলেন এই যুবক?‌ এইসব প্রশ্ন খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

খী বলছেন দিলীপ ঘোষ?‌ এই বিষয়ে বিজেপির সর্বভারতীয় সহ–সভাপতি তথা মেদিনীপুরের সাংসদ দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘‌যা হচ্ছে ঠিক হচ্ছে না। বিজেপি কর্মীদের উপর আক্রমণ নামিয়ে আনা হচ্ছে। ভয় দেখিয়ে কাজ না হওয়ায় কর্মীদের খুন করা হচ্ছে। এভাবে সরকার টিকবে না।’‌ কাশীপুরের পর পূর্ব মেদিনীপুরের এই ঘটনায় শোরগোল পড়ে গিয়েছে।

বন্ধ করুন