বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > দিনেদুপুরে শিলিগুড়ির পোস্ট অফিসে বিস্ফোরণ, পার্সেল এসেছিল অমৃতসর থেকে
শিলিগুড়ির পোস্ট অফিসে বিস্ফোরণ (ছবি সৌজন্য সংগৃহীত)
শিলিগুড়ির পোস্ট অফিসে বিস্ফোরণ (ছবি সৌজন্য সংগৃহীত)

দিনেদুপুরে শিলিগুড়ির পোস্ট অফিসে বিস্ফোরণ, পার্সেল এসেছিল অমৃতসর থেকে

  • দ্রুত ঘটনাস্থলে আসে বম্ব স্কোয়াড। নিয়ে আসা হয় স্নিপার ডগকে।

আচমকা একটি পার্সেলে মৃদু বিস্ফোরণ। তারপর সেই পার্সেল থেকে বেরোতে থাকে ধোঁয়া। দেখা যায় ফুলকি। সেই ঘটনা ঘিরে মঙ্গলবার সকালে হুলুস্থুলু পড়ে যায় শিলিগুড়ির প্রধাননগর ডাকঘরে।

আরও পড়ুন : বক্সায় একটিও বাঘ নেই, উঠে এল কেন্দ্রের রিপোর্টে, শীর্ষে করবেট ন্যাশনাল পার্ক

সকালে সাড়ে ১১ টা নাগাদ একজন পিয়ন পার্সেলটি নিয়ে নাড়াচাড়া করছিলেন। তখনই বিস্ফোরণ ঘটে। খবর পেয়েই দ্রুত ঘটনাস্থলে আসে বম্ব স্কোয়াড। নিয়ে আসা হয় স্নিপার ডগকে। আসেন সিআইডি আধিকারিকরা।

আরও পড়ুন : সোমের পর মঙ্গলেও পশ্চিমবঙ্গে কমল করোনা

প্রাথমিক তদন্তের পর জানা গিয়েছে, ইএমএস স্পিড পোস্টের মাধ্যমে অনিরুদ্ধ ভরদ্বাজ নামে অমৃতসরের এক ব্যক্তি সেই পার্সেল পাঠিয়েছিলেন। যিনি এয়ার গান নিয়ে কাজ করেন। অনুজ তামাং নামে এক স্থানীয় বাসিন্দার উদ্দেশে গত ১০ জুলাই সেই পার্সেল পাঠানো হয়েছিল। তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

আরও পড়ুন : রাফাল গেমচঞ্জার, তুলনাতেই আসে না চিনের J 20, বললেন প্রাক্তন বায়ুসেনা প্রধান ধানোয়া

প্রধাননগর ডাকঘরের পোস্টমাস্টার অর্চনা দে জানান, মঙ্গলবার সকালেই পার্সেলটি এসেছিল। শিলিগুড়ির (জোন ২) ডেপুটি পুলিশ কমিশনার কুনওয়ার ভূষণ সিং বলেন, ‘এখনও পর্যন্ত তদন্তে উঠে এসেছে যে পার্সেলে এয়ার গানে কার্তুজ হিসেবে ব্যবহৃত দাহ্য পদার্থ ছিল।’

আরও পড়ুন : করোনার সময় নাগাড়ে রোগী সেবা, হাসপাতালে ভরতি ফুয়াদ হালিম

এক উচ্চপদস্থ পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন, পোস্ট অফিসের মাধ্যমে দাহ্য পদার্থ পাঠানো যায় না। তাই কীভাবে সেই পার্সেলটি অমৃতসর থেকে পাঠানো হয়েছে, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

আরও পড়ুন : বায়ু দূষণের জন্য গড়ে সাত বছর আগে মৃত্যু হচ্ছে বাংলার মানুষের

বন্ধ করুন