বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > পুকুরে ভেসে উঠল শিশুকন্যার দেহ, খুন কিনা খতিয়ে দেখছে পুলিশ
 (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
 (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

পুকুরে ভেসে উঠল শিশুকন্যার দেহ, খুন কিনা খতিয়ে দেখছে পুলিশ

মেয়েটির মা–বাবর অভিযোগ, এক মহিলার সঙ্গে গত দু মাস আগে তাঁদের ঝামেলা হয়েছিল। সে–ই খুন করেছে তাঁদের মেয়েকে।

গত রবিবার বাড়িতেই খেলা করছিল ৭ বছরের ছোট্ট মেয়ে রিয়া। তারপর আচমকাই সে নিখোঁজ হয়ে যায়। চারদিকে খোঁজাখুজি করেও পাওয়া যাচ্ছিল না তাকে। মঙ্গলবার সাতসকালে বাড়ির কাছেই পুকুরে একটি দেহ ভাসতে দেখেন প্রতিবেশিরা। দেখা যায়, দেহটি ওই শিশুকন্যার। কিন্তু কীভাবে মৃত্যু হল শিশুটির, তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

ঘটনাটি ঘটেছে ক্যানিং থানা এলাকার তালদি গ্রাম পঞ্চায়েতের বয়ালসিং গ্রামে। গোটা ঘটনায় এলাকায় তীব্র চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। জানা গিয়েছে, প্রায় ১২ বছর আগে টালিগঞ্জের প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে বিয়ে হয় বাবু নস্কর নামে এক যুবকের। রাস্তায় কাগজ, প্লাস্টিক কুড়িয়ে দিন যাপন করেন তাঁরা। দুই বছর আগে বয়ালসিং গ্রামে ভাড়া বাড়িতে থাকতে শুরু করেন ওই দম্পতি। ৭ বছরের ছোট্ট মেয়েকে নিয়ে সংসার বেশ ভালোই চলছিল। গত রবিবার বাড়িতেই খেলা করছিল মেয়েটি। এরপরই তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। বাড়ির বাসিন্দা থেকে শুরু করে আশেপাশের লোকেরা খোঁজাখুঁজি শুরু করে দেন। বাড়ির মালিকও খুঁজছিলেন। তবে অনেক খোঁজাখুজির পরও পাননি। শেষপর্যন্ত এদিন সকালে বাড়ির কাছেই একটি পুকুরে ভেসে ওঠে দেহ। সঙ্গে সঙ্গে এলাকায় হইচই পড়ে যায়। খবর দেওয়া হয় পুলিশকে। ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে দেহটিকে উদ্ধার করে।

মেয়েটির মা–বাবর অভিযোগ, এক মহিলার সঙ্গে গত দু মাস আগে তাঁদের ঝামেলা হয়েছিল। সে–ই খুন করেছে তাঁদের মেয়েকে। তবে পুলিশ এখনই এই বিষয়ে কিছু নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারছে না। কেন–ই বা ওই মহিলা তাঁদের শিশুকন্যাকে খুন করতে যাবেন, তা এখনও স্পষ্ট নয়। পুলিশ গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখছে।

বন্ধ করুন