বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বসিরহাটের ঘোজাডাঙা সীমান্তে খালে উদ্ধার গুজরাটের যুবকের দেহ
প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

বসিরহাটের ঘোজাডাঙা সীমান্তে খালে উদ্ধার গুজরাটের যুবকের দেহ

  • জানা গিয়েছে, তাঁর নাম শেখ ইমরান। বছর চব্বিশের ইমরান আহমেদাবাদের জুহাপুরার বাসিন্দা।

‌উত্তর ২৪ পরগনার ভারত–বাংলাদেশ সীমান্ত এলাকায় খাল থেকে উদ্ধার গুজরাটের বাসিন্দা এক যুবকের দেহ। এ ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে বসিরহাটের ঘোজাডাঙা এলাকায়। তদন্ত শুরু করেছে বসিরহাট থানার পুলিশ।

শুক্রবার টহল দেওয়ার সময় ঘোজাডাঙা বিদ্যাধরী নালায় একটি দেহ ভাসতে দেখেন বিএসএফ জওয়ানরা। দেহটি উদ্ধার করার পর গ্রামবাসীদের ঘটনাস্থলে ডাকা হয়। কিন্তু গ্রামবাসীদের কেউই ওই ব্যক্তিকে শনাক্ত করতে পারেনন। দেহ এবং চারপাশে আরও ভালভাবে তল্লাশি করার পাওয়ার বিএসএফ একটি আধার কার্ড উদ্ধার করে। আধার কার্ডে ছবির সঙ্গে মৃতের মুখ মিলে যায়। জানা গিয়েছে, তাঁর নাম শেখ ইমরান। বছর চব্বিশের ইমরান আহমেদাবাদের জুহাপুরার বাসিন্দা। এর পরই বিএসএফের তরফ থেকে বসিরহাট থানার পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয় ওই দেহ।

গুজরাটের এক বাসিন্দার দেহ পশ্চিমবঙ্গের সীমান্তবর্তী এলাকা ঘোজাডাঙায় উদ্ধার হওয়ার পেছনে কী কারণ থাকতে পারে তা তদন্ত করে দেখছে পুলিশ। কীভাবে মৃত্যু হয়েছে সেটাও জানার চেষ্টা করা হয়েছে। গুজরাটে ইমরানের বাড়ির লোকজনকে তাঁর মৃত্যুর খবর জানানো হয়েছে।

বন্ধ করুন