বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘খেলা হবে,’ প্রকাশিত হল অনুব্রত মণ্ডলের জীবনী, ব্রাত্যর হাত ধরে ‘কেষ্ট কাহিনী!'
অনুব্রত মণ্ডল, তৃণমূলের বীরভূম জেলা সভাপতি

‘খেলা হবে,’ প্রকাশিত হল অনুব্রত মণ্ডলের জীবনী, ব্রাত্যর হাত ধরে ‘কেষ্ট কাহিনী!'

  • কেন তিনি ভোটে দাঁড়ান না? কেন তিনি মন্ত্রী হলেন না কোনওদিন?

গুড় বাতাসা, পগার পার তত্ত্বকে তুমুল জনপ্রিয় করেছিলেন যিনি তিনি আর কেউ নন খোদ অনুব্রত মণ্ডল। শুধু ভোটের সময় নয়, বছরভর তাঁর চমকের জন্য অপেক্ষা করে থাকে বাংলার রাজনীতি প্রিয় মানুষ। খোদ তৃণমূল নেত্রীর অত্যন্ত স্নেহের পাত্র বীরভূমের তৃণমূলের জেলা সভাপতি অনুব্রত। আর এবার ভোটের আগে খেলা হবে স্লোগানকে একেবারে অন্য মাত্রায় নিয়ে গিয়েছিলেন অনুব্রত মন্ডল। এবার সেই অনুব্রত মণ্ডলেরই জীবনী প্রকাশিত হল। রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু বুধবার বোলপুরের গীতাঞ্জলি প্রেক্ষাগৃহে এই জীবনী উদ্বোধন করেছেন। খোশ মেজাজেই হাজির ছিলেন অনুব্রত মণ্ডল। ওই অনুষ্ঠানে রাজ্যের ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প মন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিনহাও উপস্থিত ছিলেন।

এক সাংবাদিক বইটি লিখেছেন। বইয়ের দাম রাখা হয়েছে ২০০ টাকা। নাম, খেলা হবে। কিন্তু এসবের মধ্যে একটা কথা ওঠে বার বারই। এই যে দোর্দন্ডপ্রতাপ নেতা। বীরভূমের রাজনীতি আবর্তিত হয় যাঁকে ঘিরে। যাঁর নামে জীবনীও লেখা হয়। কিন্তু কেন তিনি ভোটে দাঁড়ান না? কেন তিনি মন্ত্রী হলেন না কোনওদিন?ব্রাত্য বসু বলেন, চাইলেই আমাদের সঙ্গে নামের তালিকায় যুক্ত হতে পারতেন অনুব্রত। মুখ্যমন্ত্রীর এতটাই কাছের উনি যে চাইলে সব পেতে পারতেন। কিন্তু তিনি সেটা করেননি। কারণ বীরভূমের আকাশ, বাতাস, জল তারা ওঁকে বলেছে যে অনুব্রত মণ্ডল একটা মাত্র জায়গায় সীমাবদ্ধ থাকবেন না। বলেছে অনুব্রত তুমি বিশ্বাসের মধ্য়ে নির্বিশেষ। নিজের দফতর বা রাজ্যসভায় তাঁকে বেঁধে ফেলা অর্থহীন। কেষ্ট মন্ডলকে পাশে বসিয়ে জানিয়ে দিলেন ব্রাত্য।

 

বন্ধ করুন