বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বিধিনিষেধের প্রচারে বেরিয়ে 'নিয়মভঙ্গ' খোদ প্রশাসনিক আধিকারিকদের!‌
বিধিনিষেধের প্রচারে বেরিয়ে বিধিভঙ্গ খোদ প্রশাসনিক আধিকারিকদের!‌ (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ফেসবুক @WBPolice)
বিধিনিষেধের প্রচারে বেরিয়ে বিধিভঙ্গ খোদ প্রশাসনিক আধিকারিকদের!‌ (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ফেসবুক @WBPolice)

বিধিনিষেধের প্রচারে বেরিয়ে 'নিয়মভঙ্গ' খোদ প্রশাসনিক আধিকারিকদের!‌

স্থানীয় বাসিন্দারা দেখেন, যেখানে জমায়েতের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা রয়েছে, সেখানে সচেতনতার প্রচার করতে প্রায় ১০০ জনের মতো প্রশাসনিক আধিকারিকরা জমায়েত করেছেন! ‌

যাঁদের কাঁধে নিয়মরক্ষার দায়িত্ব, তাঁদের বিরুদ্ধেই এবার জমায়েত করে নিয়মভঙ্গের অভিযোগ উঠল বোলপুরে। বিধিভঙ্গ যাতে না-‌করেন মানু্ষ, সেই নিয়ে সচেতনতা প্রচার করতে বেরিয়ে, খোদ প্রশাসনিক আধিকারিকদের একাংশের বিরুদ্ধেই বিধিভঙ্গের অভিযোগ করলেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এপ্রসঙ্গে বীরভূম জেলার পুলিশ সুপার নগেন্দ্র ত্রিপাঠী বলেন, ‘‌ বিষয়টা ঠিক কী হয়েছে আমরা দেখছি।’‌

ঠিক কী ঘটেছিল? ‌কেনই বা মানুষের প্রশ্নের মুখে পড়তে হল তাঁদের?‌

ঘটনাটি শনিবারের। ঘটনার রাতে বোলপুর চৌরাস্তার মোড়ে সাধারণ মানু্ষকে সচেতনতার পাঠ পড়াতে সেখানে উপস্থিত হন প্রশাসনিক আধিকারিকরা। তাঁদের মধ্যে যেমন ছিলেন, পুর আধিকারিকরা, তেমনই বোলপুর থানার পুলিশ, এসডিও, বিডিও-‌সহ উচ্চপদস্থ আধিকারিকরাও। তাঁরা সেখানে করোনার থেকে মানুষকে সচেতন করতে প্রচার শুরু করেন। তার মধ্যেই বিধিনিষেধ অমান্য করলে, কী কী শাস্তির মুখে পড়তে হতে পারে, তারও বিস্তারিতভাবে ব্যাখ্যা করেন তাঁরা। কিন্তু স্থানীয় বাসিন্দারা দেখেন, যেখানে জমায়েতের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা রয়েছে, সেখানে সচেতনতার প্রচার করতে প্রায় ১০০ জনের মতো প্রশাসনিক আধিকারিকরা জমায়েত করেছেন! ‌এই নিয়েই প্রশ্ন তুলতে শুরু করেন স্থানীয় বাসিন্দারা যে, যাঁদের কাঁধে নিয়মরক্ষার দায়িত্ব রয়েছে, তাঁরা কীভাবে নিয়ম ভাঙতে পারেন। এই নিয়ে তাঁদের প্রশ্ন করা হলেও কোনও সদুত্তর পাওয়া যায়নি।

বন্ধ করুন