বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > পাচারের ছক বানচাল, পেট্রাপোল সীমান্তে ১০০ কেজি ইলিশ–সহ ধৃত দত্তপুকুরের বাসিন্দা
প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

পাচারের ছক বানচাল, পেট্রাপোল সীমান্তে ১০০ কেজি ইলিশ–সহ ধৃত দত্তপুকুরের বাসিন্দা

  • কিছুদিন আগেই ২৯ কেজি ইলিশ–সহ বিএসএফ গ্রেফতার করে গাইঘাটার এক ব্যক্তিকে।

ব্যবসায়ীদের লাগাতার আবেদনের ভিত্তিতে এবার ইলিশ রপ্তানির বিশেষ অনুমোদন দিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। ধাপে ধাপে পশ্চিমবঙ্গে ঢুকছে মোট ১৪৫০ টন বাংলাদেশি ইলিশ। এর পরেও বেআইনিভাবে পদ্মার ইলিশ পাচার বন্ধই হচ্ছে না। কিছুদিন আগেই ২৯ কেজি ইলিশ–সহ বিএসএফ গ্রেফতার করে গাইঘাটার এক ব্যক্তিকে। এবার পেট্রাপোল সীমান্তে বাংলাদেশ থেকে ভারতে পাচারের সময় ১০০ কেজি ইলিশ বাজেয়াপ্ত করল বিএসএফ। বৃহস্পতিবার বিএসএফের তরফ থেকে এ কথা জানানো হয়েছে।

জানা গিয়েছে, উত্তর ২৪ পরগনার বনগাঁ–সংলগ্ন ওই সীমান্ত এলাকায় এদিন রুটিন চেকিং করছিলেন বিএসএফের জওয়ানরা। সে সময় একটি ট্রাক থেকে ৬টি বস্তায় ভরা ইলিশ মাছের সন্ধান পান তাঁরা। ট্রাকের মধ্যে সেগুলি লুকিয়ে রাখা ছিল। জানা গিয়েছে, উদ্ধার হওয়া মাছগুলির বর্তমান বাজারদর ১ লক্ষ টাকার বেশি। ট্রাক–সহ চালক ও মাছগুলিকে পেট্রাপোলের কাস্টম্‌স কর্তাদের হাতে তুলে দেয় বিএসএফ। বাজেয়াপ্ত হওয়া ইলিশ ও ট্রাকের মূল্য প্রায় ৯ লক্ষ টাকা।

বিএসএফ আধিকারিকরা জানিয়েছেন, ধৃত ট্রাকচালকের বাড়ি উত্তর ২৪ পরগনার দত্তপুকুরে কালিয়ানাই গ্রামে। ওই ট্রাকচালক জানিয়েছেন, তিনি এদিন ট্রাকে মোটরগাড়ির যন্ত্রাংশ বোঝাই করে বাংলাদেশে গিয়েছিলেন। ফেরার সময় এক বাংলাদেশি তাঁর ট্রাকে ইলিশ–ভর্তি ওই ৬টি বস্তা তুলে হাতে ৬ হাজার টাকা গুঁজে দেয়। এবং ওই ব্যক্তি তাঁকে জানায়, সেগুলি বনগাঁয় এক ব্যক্তির হাতে তুলে দিতে হবে।

বন্ধ করুন