বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > পাচারের আগে সীমান্তে বাজেয়াপ্ত ওপার বাংলার ৬০০ কেজি ইলিশ
পাচারের আগে সীমান্তে উদ্ধার ওপার বাংলার ৬০০ কেজি ইলিশ (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ফেসবুক)

পাচারের আগে সীমান্তে বাজেয়াপ্ত ওপার বাংলার ৬০০ কেজি ইলিশ

  • ভারতে ওই পরিমাণ ইলিশের বাজারমূল্য ১০ লাখ টাকা।

পাচারের আগে মুর্শিদাবাদে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত থেকে ৬০০ কিলোগ্রাম ইলিশ মাছ বাজেয়াপ্ত করল বিএসএফ। যার মূল্য প্রায় ১০ লাখ টাকা।

সীমান্তরক্ষী বাহিনীর তরফে জানানো হয়েছে, শনিবার ফরাজিপারা সীমান্তে স্পিডবোটে টহল দিচ্ছিলেন জওয়ানরা। সেই সময় তাঁরা দেখতে পান, জলে পাটের জাগের তলায় প্লাস্টিকে লুকিয়ে ভারতে ইলিশ আনা হচ্ছে। বাংলাদেশের দিক থেকে চার-পাঁচজন জলের তলায় ডুবে সেই ইলিশ মাছ নিয়ে আসছিল। বিষয়টি বিএসএফের নজরে পড়তেই পাচারকারীরা পালিয়ে যায়। 

স্থানীয়দের দাবি, প্রতি বছর এই সময় চোরাপথে বাংলাদেশ থেকে ভারতে ইলিশ নিয়ে আসা হয়। এবারও সেই ধারায় ছেদ পড়েনি। বিশেষত এবার ভারতীয় সীমান্তে ইলিশের সেভাবে দেখা মেলেনি। ফলে চোরাপথে বাংলাদেশ থেকে ইলিশের আসছিল। তা দিয়েই কিছুটা স্বাদ মেটাচ্ছেন ভোজনরসিক বাঙালিরা। 

সূত্রের খবর, গোয়েন্দা মারফত খবর পেয়ে ইলিশ পাচার রুখতে আগে থেকেই নজরদারি চালানো হচ্ছিল। শনিবার দুপুরে একটি নদী থেকে ৬০০ কিলোগ্রামের ইলিশ পাকড়াও করা হয়। ভারতে যার বাজারমূল্য ৯.৬ লাখ টাকা।

তবে শুধু মুর্শিদাবাদ নয়, রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে বাংলাদেশ থেকে চোরাপথে ইলিশ নিয়ে আসার চেষ্টা করা হচ্ছে। চলতি মাসের গোড়াতেই পেট্রাপোল সীমান্তে পদ্মার ইলিশবোঝাই একটি ট্রাককে পাকড়াও করে বিএসএফ।

বন্ধ করুন