বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > করোনার বাড়বাড়ন্তের মধ্যে কি বাড়ছে বাসভাড়া? জানিয়ে দিল সংগঠনগুলি
‌করোনা আবহে যাত্রীদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে বাসের ভাড়া বাড়ছে না। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
‌করোনা আবহে যাত্রীদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে বাসের ভাড়া বাড়ছে না। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

করোনার বাড়বাড়ন্তের মধ্যে কি বাড়ছে বাসভাড়া? জানিয়ে দিল সংগঠনগুলি

আগামী ১৭ মে পেট্রোপণ্যের লাগাতার মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে গান্ধীমূর্তির পাদদেশে অবস্থান বিক্ষোভের ডাক দিল ওয়েস্টবেঙ্গল বাস ও মিনিবাস ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন।

‌করোনা আবহে যাত্রীদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে বাসের ভাড়া বাড়ছে না। রবিবার সাংবাদিক বৈঠক করে এই কথা জানিয়ে দিল বাস ও মিনিবাস সংগঠন। একইসঙ্গে আগামী ১৭ মে পেট্রোপণ্যের লাগাতার মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে গান্ধীমূর্তির পাদদেশে অবস্থান বিক্ষোভের ডাক দিল ওয়েস্টবেঙ্গল বাস ও মিনিবাস ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন।

করোনা সংক্রমণ ক্রমশ বেড়ে চলায় বন্ধ রাখতে হয়েছে লোকাল ট্রেন। এই পরিস্থিতিতে পরিবহণে একমাত্র ভরসা বাস। সরকারি বাসের ক্ষেত্রে নির্দেশিকা অনুযায়ী ৫০ শতাংশ বাসের সংখ্যা কমিয়ে দেওয়া হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে পেট্রোপণ্যের দাম প্রতিদিনই বাড়ছে। ফলে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে বেসরকারি বাস ও মিনিবাস মালিকদের। তবে রবিবার সংগঠনের তরফে জানানো হয়, গত বছর লকডাউনের জেরে পুরোপুরি বন্ধ ছিল পরিবহণ।পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে কিছুটা স্বাভাবিক হলেও পরিবহণ স্বাভাবিক হয়নি। বাস চললেও ছিল না যাত্রী। লাফিয়ে লাফিয়ে বৃদ্ধি পাচ্ছিল বাসভাড়া।করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে ফের একবার মুখ থুবড়ে পড়েছে বাস পরিষেবা। বাসে প্রতিদিনই বাড়ছে যাত্রী সংখ্যা। সেইসঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে পেট্রল, ডিজেলের দাম।এবার যাত্রীদের কথা ভেবেই ভাড়া না বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

রাজ্যের বাস ও মিনিবাস অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ নারায়ণ বসু জানান, নির্বাচনী কাজে যেসব বাস ভাড়া নিয়েছিল, সেই সব টাকাও পুরোপুরি দিয়ে উঠতে পারেনি কমিশন। ফলে সমস্যায় পড়েছেন বাস কর্মীরা। সবদিক বিচার করেই ১৭ মে অবস্থান বিক্ষোভের ডাক দেওয়া হয়েছে।

বন্ধ করুন