বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Maheshtala Rape: মহেশতলায় মহিলাকে ধর্ষণ করার অভিযোগ ব্যবসায়ী–পুত্রের বিরুদ্ধে, গ্রেফতার যুবক

Maheshtala Rape: মহেশতলায় মহিলাকে ধর্ষণ করার অভিযোগ ব্যবসায়ী–পুত্রের বিরুদ্ধে, গ্রেফতার যুবক

মহিলাকে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠল যুবকের বিরুদ্ধে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

মহিলাকে ধর্ষণের এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই আজ, বুধবার সকালে তুমুল উত্তেজনা দেখা দেয় এলাকায়। অভিযুক্ত যুবকের বাড়ি ও তার বাবার দোকান ভাঙচুর করা হয়। তখন উত্তেজিত জনতাকে সামাল দিতে বিশাল পুলিশবাহিনী ঘটনাস্থলে যায়। ওই যুবকের বাবা এলাকার প্রতিষ্ঠিত পোশাক ব্যবসায়ী বলে স্থানীয় সূত্রে খবর।

এবার বাড়িতে ঢুকে এক মহিলাকে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠল যুবকের বিরুদ্ধে। এই যুবক ব্যবসায়ীর ছেলে বলে খবর। মহেশতলায় মহিলার ঘরে ঢুকে তাঁর গলা টিপে ধর্ষণ করেছে ওই যুবক বলে অভিযোগ উঠল। ওই মহিলার বয়স (‌৫০)‌। তবে এই বয়স নিয়ে ধোঁয়াশা আছে বলে মনে করছে পুলিশ। আরও কমবয়সি হতে পারেন বলে অনুমান। আজ, বুধবার সকালে ধুন্ধুমার বাধে মহেশতলার মণ্ডলপাড়ায়। কারণ অভিযুক্ত যুবকের বাড়ি–দোকানে ভাঙচুর করেন স্থানীয় মানুষ। তবে ওই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ঠিক কী তথ্য পেয়েছে পুলিশ?‌ পুলিশ সূত্রে খবর, মহেশতলার বাসিন্দা ওই মহিলা বাড়িতে একাই থাকতেন। তাঁর স্বামী আগেই মারা গিয়েছেন। আর একমাত্র ছেলে কর্মসূত্রে বাইরে থাকেন। এই সুযোগে মঙ্গলবার রাতে মদ্যপ অবস্থায় অভিযুক্ত যুবক বাড়িতে ঢুকে পড়ে। তারপর ওই মহিলার গলা টিপে ধরে তাঁকে ধর্ষণ করে। এই ঘটনার পর অচৈতন্য হয়ে পড়েন ওই মহিলা। তখন ঘাবড়ে যায় অভিযুক্ত মদ্যপ ব্যবসায়ীপুত্র। তখন নিজের বাবাকে গিয়ে কুর্মের কথা জানায়।

তারপর সেখানে ঠিক কী ঘটল?‌ ছেলের কুকর্মের কথা শুনে তার বাবা দ্রুত প্রতিবেশীদের ডেকে নিয়ে ওই মহিলার ঘরে যান। তখনও ওই মহিলা অচৈতন্য অবস্থায় পড়েছিলেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে মহেশতলা থানার পুলিশ। অচৈতন্য ওই মহিলাকে উদ্ধার করে বেহালার বিদ্যাসাগর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু সেখানে ওই মহিলার অবস্থার অবনতি হওয়ায় খিদিরপুরের একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে ভর্তি করা হয়। নির্যাতিতার শারীরিক অবস্থা জটিল বলে হাসপাতাল সূত্রে খবর।

আর কী জানা যাচ্ছে?‌ মহিলাকে ধর্ষণের এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই আজ, বুধবার সকালে তুমুল উত্তেজনা দেখা দেয় এলাকায়। অভিযুক্ত যুবকের বাড়ি ও তার বাবার দোকান ভাঙচুর করা হয়। তখন উত্তেজিত জনতাকে সামাল দিতে বিশাল পুলিশবাহিনী ঘটনাস্থলে যায়। ওই যুবকের বাবা এলাকার প্রতিষ্ঠিত পোশাক ব্যবসায়ী বলে স্থানীয় সূত্রে খবর। পুলিশ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে।

বন্ধ করুন