বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > 'আগে দিলীপ ঘোষকে গুলি করে মারা উচিত', ফের জাত চেনালেন অনুব্রত
তৃণমূল নেতা অনুব্রত মণ্ডল। ফাইল ছবি
তৃণমূল নেতা অনুব্রত মণ্ডল। ফাইল ছবি

'আগে দিলীপ ঘোষকে গুলি করে মারা উচিত', ফের জাত চেনালেন অনুব্রত

  • এদিন দিলীপ ঘোষের মন্তব্য নিয়ে অনুব্রতবাবুকে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করলে তেলে বেগুনে জ্বলে ওঠেন তিনি।

দিলীপ ঘোষের ‘গুলি করে মারা উচিত’ মন্তব্যকে সমালোচনা করতে গিয়ে বেলাগাম অনুব্রত মণ্ডল। সোমবার বীরভূমে এক অনুষ্ঠানে কেষ্টবাবু বলেন, ‘কেন্দ্রীয় সরকারের উচিত দিলীপ ঘোষকে গুলি করে মারা।’

এদিন দিলীপ ঘোষের মন্তব্য নিয়ে অনুব্রতবাবুকে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করলে তেলে বেগুনে জ্বলে ওঠেন তিনি। বলেন, ‘কেন্দ্রীয় সরকারের উচিত দিলীপ ঘোষকে গুলি করে মেরে দেওয়া। কারণ প্রথম সম্পত্তি কেউ নষ্ট করে থাকলে সে হল বিজেপি নেতা দিলীপ ঘোষ।’

বলে রাখি, রবিবার নদিয়ায় ‘এক জনসভায় বিজেপির রাজ্য সভাপতির বক্তব্য ঘিরে বিতর্ক বাঁধে। তিনি বলেন, প্রায় ১ কোটি লোক ওদিক থেকে ঢুকেছে। আমার আপনার ট্যাক্সের টাকায় খাবে, পরবে আবার এদেশেই ভাঙচুর করবে। প্রায় ৬০০ কোটি টাকার সম্পত্তি ভাঙচুর হয়েছে। কেউ গ্রেফতার হয়নি। একটা লাঠিও চলেনি, গুলিও চলেনি। ভোটার বলে কিছু করছেন না? দেখুন, অসমে, উত্তর প্রদেশে, কর্ণাটকে আমাদের সরকার এই শয়তানদের গুলি করে মেরেছে কুত্তার মতো। আমরা ক্ষমতায় এলে এখানে আমরাও মারব।‘

দিলীপবাবুর নাম না করলেও সোমবার তৃণমূল ছাত্র পরিষদের CAA বিরোধী মঞ্চ থেকে তার সমালোচনা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন তিনি বলেন, ‘মুখে নাম নিতে লজ্জা করে। বলছে আন্দোলনকারীদের ওপর গুলি চালালো না কেন? আপনারা তো এটাই চান। কিছু হলে তার দায়িত্ব তো নিতে হবে না।’

দিলীপবাবুর মন্তব্যের সমালোচনা শুরু হয়েছে তাঁর দলের ভিতরেই। বিজেপির মন্ত্রী তথা আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় টুইট করে দিলীপূবাবুর মন্তব্যের সমালোচনা করেছেন। তিনি লিখেছেন, দিলীপ ঘোষের মন্তব্য তাঁর ব্যক্তিগত। বিজেপি সরকার কোথাও আন্দোলনকারীদের লক্ষ্য করে গুলি চালায়নি। দলের মধ্যে সমালোচনার মুখে পড়েও নিজের অবস্থান থেকে নড়তে রাজি নন দিলীপ। তিনি বলেন, যা ঠিক মনে হয়েছে বলেছি। সরকারে এলে গুলি করে মারব।

বন্ধ করুন