বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > TMC district conference in Burdwan: বর্ধমানে তৃণমূলের জেলা সম্মেলন শেষে বিরিয়ানির প্যাকেট নিয়ে কাড়াকাড়ি, চরম বিশৃঙ্খলা

TMC district conference in Burdwan: বর্ধমানে তৃণমূলের জেলা সম্মেলন শেষে বিরিয়ানির প্যাকেট নিয়ে কাড়াকাড়ি, চরম বিশৃঙ্খলা

তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সম্মেলনে বিশৃঙ্খলা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে এএনআই)

রবিবার তৃণমূলের তরফে জেলা সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। তাতে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূলের রাজ্য সহ-সভাপতি জয়প্রকাশ মজুমদার, জেলা তৃণমূল সভাপতি রবীন্দ্রনাথ চট্টোপাধ্যায়, সংখ্যালঘু সেলের জেলা সভাপতি মহম্মদ আশরাফ উদ্দিন-সহ অন্যান্য নেতারা। এই সম্মেলনে যোগ দিয়েছিলেন বহু দলীয়কর্মী।

তৃণমূলের জেলা সম্মেলনে বিরিয়ানির ব্যবস্থা করা হয়েছিল কর্মীদের জন্য। সভার শেষে কর্মীদের বিরিয়ানি বিতরণ করতে গিয়ে তৈরি হল চরম বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি। ঘটনাটি ঘটেছে বর্ধমান শহরের সংস্কৃতি লোকমঞ্চে। জেলা সম্মেলন শেষে বিরিয়ানির প্যাকেট নিয়ে কর্মীদের মধ্যে কাড়াকাড়ি হয়, তখনই বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি তৈরি হয়। তবে তৃণমূলের দাবি, কোনও রকমের ঝামেলা হয়নি। কর্মীর তুলনায় বিরিয়ানির প্যাকেট কম পড়ায় একটু বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। যদিও সেই সমস্যা মিটে গিয়েছে বলেই দাবি তৃণমূলের।

জানা গিয়েছে, রবিবার তৃণমূলের তরফে জেলা সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। তাতে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূলের রাজ্য সহ-সভাপতি জয়প্রকাশ মজুমদার, জেলা তৃণমূল সভাপতি রবীন্দ্রনাথ চট্টোপাধ্যায়, সংখ্যালঘু সেলের জেলা সভাপতি মহম্মদ আশরাফ উদ্দিন সহ অন্যান্য নেতারা। এই সম্মেলনে যোগ দিয়েছিলেন বহু দলীয়কর্মী। সভার শেষে দলীয় কর্মীদের জন্য তৃণমূলের তরফে বিরিয়ানির ব্যবস্থা করা হয়। সেই মতোই সভা শেষে মঞ্চের পাশে একটি কাউন্টার থেকে কর্মীদের বিরিয়ানি বিতরণ করা হয় তখনই ঘটে বিপত্তি। একসঙ্গে বহু মানুষ বিরিয়ানির জন্য কাউন্টারে ভিড় করলে হুড়োহুড়ি শুরু হয়ে যায়। অনেক বিরিয়ানির প্যাকেট মাটিতে পড়ে যায়। যার ফলে বিরিয়ানি প্যাকেট কম পড়ে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সংখ্যালঘু সেলের সভাপতি দ্রুত আরও বিরিয়ানির প্যাকেট নিয়ে আসার নির্দেশ দেন। গাড়িতে করে আনা হয় বিরিয়ানি। কিন্তু, সেই গাড়ি ঘিরেও হুড়োহুড়ি শুরু হয় কর্মীদের। সূত্রের খবর, অনেকেই বিরিয়ানির প্যাকেট না পেয়ে ফিরে যান।

প্রসঙ্গত, পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে সংগঠনকে কীভাবে মজবুত করতে হবে এবং জনসংযোগ কীভাবে বাড়াতে হবে? তা নিয়ে দলীয় কর্মীদের পরামর্শ দেন তৃণমূলের নেতারা। এদিন জয়প্রকাশ মজুমদার বক্তব্য রাখতে গিয়ে বাম আমলের সঙ্গে তুলনা টেনে তৃণমূল সরকারের প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, ‘বাম আমলে সংখ্যালঘুদের জন্য আলাদা কমিশন গঠন করা হলেও কোনও উন্নয়ন হয়নি। কিন্তু, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার ক্ষমতায় আসার পরেই সংখ্যালঘুদের উন্নয়ন হয়েছে। এর জন্য মুখ্যমন্ত্রী গবেষণা করেছেন। তাদের উন্নয়নের জন্য বাজেট বাড়িয়েছেন। সংখ্যালঘুদের উন্নয়নের জন্য বাজেটে ৪৭২ কোটি টাকা থেকে বাড়িয়ে ১০০০ কোটি টাকা করেছেন, যা অন্যান্য রাজ্যের থেকে অনেক বেশি।’ শুধু তাই নয় মাদ্রাসাগুলির মানও আগের থেকে অনেক বেশি উন্নত করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বাংলার মুখ খবর
বন্ধ করুন

Latest News

জিয়ে তো জিয়ে, চিঠি আয়ি হ্যায়:চলে গেলেন পঙ্কজ উদাস,তাঁর গাওয়া এই গান শুনেছেন IND vs ENG 4th Test: রোহিতের আউট বদলে গেল স্টাম্প থেকে ক্যাচে? কিন্তু কীভাবে? দিনে দুপুরে গৃহবধূর শ্লীলতাহানির অভিযোগ, আটক TMC নেতার গুণধর ছেলে ‘ফুলবাবু’ শুক্রের সঙ্গে শনির যুতি! শিবরাত্রির আগে তুলা সহ ৩ রাশির ভাগ্যে কয়েক গুণ লাভ নির্বাচন কমিশনের গোয়েন্দা কমিটিতে ইডি কেন? প্রশ্ন তুলে স্মারকলিপি তৃণমূলের ‘প্রস্রাব চেটে পরিষ্কার কর’, বিশ্বনাথের ৮ বছরের ছেলেকে হুমকি-মারধর প্রতিবেশির জমি ফেরাতে বলে শাহজাহানের বিপদ বাড়ালেন মমতা, বুমেরাং হল তাঁর আরও ১ সিদ্ধান্ত পেটিএম পেমেন্টস ব্যাঙ্কের চেয়ারম্যান পদ থেকে ইস্তফা বিজয়শেখর শর্মার ফেব্রুয়ারির মধ্যে কাজে ফিরতেই হবে, হুঁশিয়ারি দেওয়া হল চিকিৎসকদের বালাকোট এয়ার স্ট্রাইকের ঘটনা ফের পর্দায়! পাকিস্তানের বিরুদ্ধে হুঙ্কার জিমি-লারার

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.