বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Durgapur: প্রসূতি বিভাগ থেকে চুরি হয়ে গেল শিশু! ফের কাঠগড়ায় সরকারি হাসপাতাল
শিশু চুরির পর কান্নায় ভেঙে পড়েছেন মা। নিজস্ব ছবি

Durgapur: প্রসূতি বিভাগ থেকে চুরি হয়ে গেল শিশু! ফের কাঠগড়ায় সরকারি হাসপাতাল

  • হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার সকালে পান্ডবেশ্বরের গোসাঁইডাঙা থেকে দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন ভাদু সিং নামে এক মহিলা। তার অভিযোগ, প্রসুতি বিভাগের চার নম্বর বেডে তাকে ভর্তি করা হয়। ওই দিনই তিনি এক পুত্র সন্তানের জন্ম দেন। 

ফের সরকারি হাসপাতালে শিশু চুরির অভিযোগ উঠল। এই অভিযোগকে কেন্দ্র করে হাসপাতালের ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ালো। পশ্চিম বর্ধমানের দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে শিশু চুরির অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনায় প্রশ্ন উঠেছে হাসপাতালের নিরাপত্তা নিয়ে। একই সঙ্গে আতঙ্কিত রয়েছেন হাসপাতালের প্রসূতি বিভাগের অন্যান্য মায়েরা। ইতিমধ্যে এই ঘটনায় তদন্তে নেমেছে পুলিশ। পাশাপাশি হাসপাতালের পক্ষ থেকে একটি তদন্ত কমিটি তৈরি করা হয়েছে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার সকালে পান্ডবেশ্বরের গোসাঁইডাঙা থেকে দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন ভাদু সিং নামে এক মহিলা। তার অভিযোগ, প্রসূতি বিভাগের চার নম্বর বেডে তাকে ভর্তি করা হয়। ওই দিনই তিনি এক পুত্র সন্তানের জন্ম দেন। এরপর মঙ্গলবার দুপুরে সন্তানকে বিছানায় রেখে খাবারের বাসন ধোয়ার জন্য বাথরুমে যায় ওই মহিলা। এরই মধ্যে ঘটে যায় শিশু চুরির ঘটনা। ফিরে এসে দেখেন তার সন্তান উধাও। তার অভিযোগ, এক মহিলা প্রসূতি বিভাগে প্রথমে নিজে থেকেই তাকে সাহায্য করার হুইল চেয়ারে ঠেলে নিয়ে যেতে চেয়েছিল। কিন্তু, ভাদু তাতে আপত্তি জানিয়েছিলেন। ওই মহিলাই তার শিশুকে চুরি করেছে বলে অভিযোগ।

চুরির খবর প্রকাশ্যে আসতেই নিউটাউনশীপ থানার পুলিশকে বিষয়টি জানান দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। তদন্তে নেমেছে পুলিশ৷ তবে সরকারি হাসপাতালে থেকে সদ্যোজাত চুরির ঘটনায় এখন ব্যাপক আতঙ্কে প্রসূতি বিভাগের বাকি গর্ভবতী মহিলা ও তাদের পরিজনরা। দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালের সুপার ডক্টর ধীমান মন্ডল এই ঘটনার জন্য গর্ভবতী মহিলার পরিবারকেই দায়ী করেছেন। একই সঙ্গে বিষয়টি পুলিশ খতিয়ে দেখছে বলে তিনি জানান।

বন্ধ করুন