বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Murder: পুরুলিয়ায় বাবা–ছেলের খুনের ঘটনার কিনারা করল সিআইডি, জালে তিন দুষ্কৃতী
পুরুলিয়া জোড়া খুনের কিনারা করল সিআইডি।

Murder: পুরুলিয়ায় বাবা–ছেলের খুনের ঘটনার কিনারা করল সিআইডি, জালে তিন দুষ্কৃতী

  • ধৃতরা খুনের আগে রেইকি করেছিল। তাদের মনে হয়েছিল, পেট্রল পাম্পের ম্যানেজার বাড়ি যাওয়ার পথে টাকা নিয়ে যান। তাই তাঁদের টার্গেট করা হয়েছিল। সেই মতো পরিকল্পনা ছকে সেখানে লুকিয়ে ছিল দুষ্কৃতীরা। পেট্রল পাম্প থেকে বেরিয়ে নির্জন এলাকায় পৌঁছতেই খুন করা হয় তাঁদের। আর লুট করা হয় টাকা, মোবাইল–সহ সরঞ্জাম।

পুরুলিয়ায় বাবা–ছেলেকে একসঙ্গে খুন করা হয়েছিল। সেই খুনের নেপথ্যে ছিল ডাকাতি। পেট্রল পাম্প থেকে বাড়ির ফেরার পথে বাবা মদন পাণ্ডে এবং ছেলে কানাই পাণ্ডেকে খুন করে দুষ্কৃতীরা। গত ৯ জুলাই এই ঘটনা ঘটেছিল পুরুলিয়া মফস্বল থানার কানালি গ্রামে। সেই ঘটনার কিনারা করল সিআইডি। আর গ্রেফতার করা হল অভিযুক্তদের।

ঠিক কী ঘটেছিল পুরুলিয়ায়?‌ পুরুলিয়া কানালি গ্রামের অদূরে বাবা–ছেলেকে খুন করা হয়েছিল। পুরুলিয়া জেলা পুলিশ এবং সিআইডির যৌথ উদ্যোগে ধানবাদ–জামশেদপুর ৩২ নম্বর জাতীয় সড়কের টোল প্লাজায় ব্যবহৃত সিসিটিভির ফুটেজ খতিয়ে দেখা হয়। তারপর তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়। পুরুলিয়া জেলা পুলিশকে তদন্তে সহায়তা করে ৬ দিনের মাথায় জোড়া খুনের কিনারা করল সিআইডি। সিআইডি সূত্রে খবর, ধৃতরা নিহত বাবা–ছেলের কাছ থেকে ১২ হাজার টাকা লুট করেছিল।

সিআইডি’‌র থেকে কী জানা যাচ্ছে?‌ সিআইডি সূত্রে খবর, ধৃতদের নাম মাণ্ডিল বেদ, মনই বেদ, দীনেশ বেদ। মাণ্ডিল–মনয় দুই ভাই। এদের বাড়ি ধানবাদে। সিসিটিভি ফুটেজে এই তিনজনের ভিডিয়ো পাওয়া যায়। এদের টাওয়ার লোকেশন ট্র্যাক করে আসানসোলের চিত্তরঞ্জন এলাকার ঝাড়খণ্ড লাগোয়া চুরুলিয়া থেকে সিআইডি গ্রেফতার করা হয়। আজ, শনিবার ধৃতদের পুরুলিয়া আদালতে তোলা হবে।

আর কী জানা যাচ্ছে?‌ ধৃতরা খুনের আগে রেইকি করেছিল। তাদের মনে হয়েছিল, পেট্রল পাম্পের ম্যানেজার বাড়ি যাওয়ার পথে টাকা নিয়ে যান। তাই তাঁদের টার্গেট করা হয়েছিল। সেই মতো পরিকল্পনা ছকে সেখানে লুকিয়ে ছিল দুষ্কৃতীরা। পেট্রল পাম্প থেকে বেরিয়ে নির্জন এলাকায় পৌঁছতেই খুন করা হয় তাঁদের। আর লুট করা হয় টাকা, মোবাইল–সহ সরঞ্জাম।

বন্ধ করুন