বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > তৃণমূল ছাড়লেন শুভেন্দু অধিকারীর ঘনিষ্ঠ নেতা, পূর্ব মেদিনীপুরে শাসকদলে ফের ভাঙন
তৃণমূলের দলীয় পতাকা। ফাইল ছবি
তৃণমূলের দলীয় পতাকা। ফাইল ছবি

তৃণমূল ছাড়লেন শুভেন্দু অধিকারীর ঘনিষ্ঠ নেতা, পূর্ব মেদিনীপুরে শাসকদলে ফের ভাঙন

  • তা হলে কি এবার ‘‌দাদা’‌ শুভেন্দু অধিকারীর মতো বিজেপি–কে যাচ্ছেন ‘‌অনুগামী’‌ নীলমাধব?‌ যদিও তাঁর জবাব, ‘‌আমি এ ব্যাপারে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নেইনি। আগে আমি সমস্ত পদ থেকে ইস্তফা দিই। তার পর বিবেচনা করব।’‌

প্রথমে পদ থেকে ইস্তফা। আর তার পরপরই দলত্যাগ করলেন পূর্ব মেদিনীপুরের আর এক শুভেন্দু–ঘনিষ্ঠ তৃণমূল নেতা। সোমবার পূর্ব মেদিনীপুর জেলার পটাশপুর ২ ব্লকের পঁচেট অঞ্চল তৃণমূল সভাপতির পদ থেকে ইস্তফা দিলেন নীলমাধব দাস অধিকারী। এলাকায় শুভেন্দু অধিকারীর ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত নীলমাধব এদিন দলের সদস্যপদও ত্যাগ করেছেন। আর এতেই ফের পূর্ব মেদিনীপুরে রাজ্যের শাসকদলের সংগঠনে দেখা দিল ভাঙন।

দলের সঙ্গে সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করে এদিন নীলমাধব দাস অধিকারী বলেন, ‘‌নানারকম সমস্যায় ছিলাম। দলের কর্মীদের জানিয়েও ছিলাম। কিন্তু কোনওরকম সহযোগিতা পাইনি। আমাকে না জানিয়েই দলে নানারকম মিটিং–মিছিল করা হচ্ছিল। কিছুই জানানো হচ্ছিল না। তাই দলত্যাগ করলাম।’‌ এভাবেই এদিন তৃণমূলে সহকর্মীদের ওপর ক্ষোভ উগরে দিলেন নীলমাধব।

তা হলে কি এবার ‘‌দাদা’‌ শুভেন্দু অধিকারীর মতো বিজেপি–কে যাচ্ছেন ‘‌অনুগামী’‌ নীলমাধব?‌ যদিও তাঁর জবাব, ‘‌আমি এ ব্যাপারে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নেইনি। আগে আমি সমস্ত পদ থেকে ইস্তফা দিই। তার পর বিবেচনা করব।’‌ উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগেই পটাশপুর–২ ব্লকের তৃণমূল সহ সভাপতি ও আড়গোয়ালের অঞ্চল তৃণমূল সভাপতির পদ থেকে পদত্যাগ করেছিলেন অপরেশ সাঁতরা। এবার তৃণমূলের দলীয় অঞ্চল সভাপতির পদ থেকে সরে এলেন নীলমাধব দাস অধিকারী।

বন্ধ করুন