বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > মুখ্যমন্ত্রী আইন কানুন কিছু মানেন না, ইউক্রেন ফেরত পড়ুয়াদের প্রসঙ্গে তোপ সুকান্ত
বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার
বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার

মুখ্যমন্ত্রী আইন কানুন কিছু মানেন না, ইউক্রেন ফেরত পড়ুয়াদের প্রসঙ্গে তোপ সুকান্ত

  • পেট্রোল, ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে বিজেপির রাজ্য সভাপতি জানান, ‘‌এর জন্য রাজ্য সরকার দায়ী। মুখ্যমন্ত্রী আগে উত্তর দিন ঝাড়খণ্ড, উত্তরপ্রদেশে পেট্রোল, ডিজেলের দাম কেন কম। আগে এই উত্তর দিন, তারপর দায় কার ঘাড়ে দেবেন, সেটা ঠিক করবেন।’‌

‌মুখ্যমন্ত্রী আইন কানুন কিছু মানেন না, যা মনে হয় তাই বলে দেন। ইউক্রেন ফেরত ডাক্তারি পড়ুয়াদের ভবিষ্যত নষ্ট করার চেষ্টা করছেন। বৃহস্পতিবার এই ভাষাতেই মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যের কড়া সমালোচনা করেছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার

এদিন চুঁচুড়ায় বিজেপির আইন অমান্য কর্মসূচি ছিল। সেখানেই হাজির হয়েছিলেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। সুকান্তের পাশাপাশি এদিনের কর্মসূচিতে হাজির ছিলেন বিজেপির প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়। সেখানেই একাধিক ইস্যুতে মুখ্যমন্ত্রীকে নিশানা করেছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। এদিন ইউক্রেন থেকে ফেরত আসা পড়ুয়াদের সরকারি মেডিক্যাল কলেজে ভর্তির করার কথা বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যের সমালোচনা করে বিজেপির রাজ্য সভাপতি জানান, ‘‌এর জন্য সঠিক নীতি প্রণয়ন করা দরকার। মুখ্যমন্ত্রী আইন কানুন মানেন না। হুট করে কোনও কিছু করে দেওয়া যায় না। এর জন্য কেন্দ্রীয় সরকার ও সব রাজ্য সরকারকে বসে নীতি প্রণয়ন করতে হবে।’‌ এই প্রসঙ্গে তিনি জানান, ‘‌যদি ইউক্রেন ফেরত পড়ুয়াদের সরকারি মেডিক্যাল কলেজে জায়গা দেওয়া হয়, তাহলে যে ছাত্র ছাত্রী বঞ্চিত হবেন, তিনি তো আদালতে যেতে পারেন। আসলে মুখ্যমন্ত্রী এই সব বলে হাওয়া গরম করার চেষ্টা করছেন।’‌

এদিন অর্জুন সিংয়ের সাম্প্রতিক বক্তব্য নিয়ে জবাব দিয়েছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। তিনি জানান, ‘‌উনি ওনার এলাকার কিছু সমস্যা তুলে ধরেছেন। মাননীয় মন্ত্রী সেটা দেখছেন। আমার এলাকাতেও রেল উন্নয়নের জন্য হাজার কোটি টাকা দরকার। কিন্ত চাইলেই তো সেটা পাওয়া যায় না।’‌ এদিন পেট্রোল, ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে বিজেপির রাজ্য সভাপতি জানান, ‘‌এর জন্য রাজ্য সরকার দায়ী। মুখ্যমন্ত্রী আগে উত্তর দিন ঝাড়খণ্ড, উত্তরপ্রদেশে পেট্রোল, ডিজেলের দাম কেন কম। আগে এই উত্তর দিন, তারপর দায় কার ঘাড়ে দেবেন, সেটা ঠিক করবেন।’‌

বন্ধ করুন