বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বেশি নেওয়া যাবে না, কলেজে ভরতির জন্য আবেদনের প্রসেসিং ফি'র সীমা বেঁধে দিল রাজ্য
শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক)
শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক)

বেশি নেওয়া যাবে না, কলেজে ভরতির জন্য আবেদনের প্রসেসিং ফি'র সীমা বেঁধে দিল রাজ্য

  • করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে সিদ্ধান্ত রাজ্যের।

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে অনলাইনেই চলছে স্নাতক স্তরের ভরতির প্রক্রিয়া। সেজন্য প্রসেসিং ফি'র সর্বোচ্চ সীমা বেঁধে দিল রাজ্য সরকার। উচ্চ শিক্ষা দফতরের তরফে নির্দেশ দেওয়া হল, প্রসেসিং ফি হিসেবে ১৫০ টাকার বেশি নিতে পারবে না কলেজগুলি।

মঙ্গলবার রাজ্যের সব বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের চিঠি লিখে রাজ্য সরকারের বিশেষ সচিব শিলাদিত্য বসুরায় জানান, করোনা পরিস্থিতিতে নথি আপলোডের (প্রসেসিং ফি) জন্য পড়ুয়াদের থেকে কোনও টাকা না নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল উচ্চশিক্ষা দফতর। তারপরও কয়েকটি কলেজে সেই নির্দেশ মানা হয়নি বলে খবর এসেছে।

সূত্রের খবর, গত ১০ অগস্ট থেকে রাজ্যের কলেজগুলিতে ভরতি শুরুর পর থেকে উচ্চ শিক্ষা দফতর এবং শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কাছে খবর আসছিল, কোনও কলেজ ৩৫০ টাকা প্রসেসিং ফি নিচ্ছে, কোনও কোনও কলেজে আবার নেওয়া হচ্ছে ৪০০ টাকা। তারপরই সব বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকদের চিঠি লেখেন রাজ্য সরকারের বিশেষ সচিব। তাতে নির্দেশ দেওয়া হয়, করোনা এই পরিস্থিতিতে স্নাতক স্তরে ভরতির জন্য পড়ুয়াপিছু নথি আপলোডের জন্য সর্বোচ্চ ১৫০ টাকা নেওয়া যাবে। 

তবে অনলাইনে আবেদন প্রক্রিয়া মিটে যাওয়ার পর কলেজে ভরতি ফি'র ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ সীমা বেঁধে দেওয়া হবে কিনা, সে বিষয়ে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত বলে সূত্রের খবর। প্রসেসিং ফি'র নির্দেশিকার সঙ্গে ভরতির ফি'র কোনও সম্পর্ক নেই বলেই উচ্চ শিক্ষা দফতর খবর মিলেছে।

বন্ধ করুন