রাজ্যে করোনায় আক্রান্ত জামাত ফেরত এক ব্যক্তি (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)
রাজ্যে করোনায় আক্রান্ত জামাত ফেরত এক ব্যক্তি (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)

Coronavirus Update: নিজামুদ্দিনের জমায়েত থেকে ফিরে কাজে যোগ, রাজ্যে হদিশ এক করোনা আক্রান্তের

প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছে, নিজামুদ্দিনের জমায়েত থেকে গত ২৪ মার্চ ফিরে ওই ব্যক্তি কাজে যোগ দিয়েছিলেন।

তবলিঘি জামাত যোগে এবার রাজ্যেও করোনাভাইরাস আক্রান্তের খোঁজ মিলল। হলদিয়া বন্দরে কর্মরত ওই ব্যক্তি আপাতত বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তাঁর পরিবারের সদস্যদেরও আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

আরও পড়ুন : লকডাউনের পরে যাত্রীবাহী ট্রেন চালানোর কথা অস্বীকার করেও টুইটার পোস্ট মুছল রেল

প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছে, হলদিয়া বন্দরের জেনারেল কার্গো বার্থের একটি বেসরকারি ক্রেন অপারেটিং সুপারভাইজার পদে কর্মরত ওই ব্যক্তি। গত ২৪ মার্চ দিল্লির নিজামুদ্দিনের জমায়েত ফিরে কাজে যোগ দিয়েছিলেন তিনি। তবলিঘি যোগের কথা অবশ্য গোপন করে গিয়েছিলেন। এরইমধ্যে তাঁর জামাত যোগের খবর যায় রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতরের কাছে। তারপর ওই ব্যক্তিকে হলদিয়া মহকুমা হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভরতি করা হয়েছিল। ২ এপ্রিল তাঁর লালারসের নমুনা বেলেঘাটা আইডিতে পাঠানো হয়েছিল। রাতে রিপোর্ট আসতে জানা যায়, তিনি করোনা পজিটিভ। সে রাতেই তাঁকে বেলেঘাটা আইডিতে স্থানান্তরিত করা হয়।

আরও পড়ুন : Coronavirus Update: বাড়িতে তৈরি মাস্ক পরুন, পরামর্শ কেন্দ্রের

ওই ব্যক্তি কার কার সংস্পর্শে এসেছিলেন, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সেজন্য বন্দরের সিসিটিভি ফুটেজ দেখা হচ্ছে। অনেকের দাবি, হলদিয়ায় আসার পর তিনি একটি মসজিদেও গিয়েছিলেন। সেই বিষয়টিও দেখা হচ্ছে বলে সূত্রের খবর। পাশাপাশি, ওই ব্যক্তির আদতে চেন্নাইয়ের বাসিন্দা। ফলে সেদিকটাও বিবেচনা করা হচ্ছে।

আরও পড়়ুন :Coronavirus Update: আগামিকাল হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহারের পর জ্বালাবেন না প্রদীপ-মোমবাতি

এদিকে, এক কর্মীর করোনা আতঙ্ক হওয়ার খবরে আতঙ্ক ছড়িয়েছে হলদিয়া বন্দরে। বন্দরের কর্মীদের একাংশ শুক্রবার কাজ আসেননি। ফলে থমকে যায় বন্দরের কাজকর্ম। যদিও বন্দর কর্তৃপক্ষের দাবি, কয়েকটি বার্থে সমস্যা হলেও তা দীর্ঘস্থায়ী হয়নি। স্বাভাবিক কাজকর্মই হয়েছে।

বন্ধ করুন