প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

লকডাউনের মধ্যেই রায়গঞ্জে দিনে দুপুরে গুলিবিদ্ধ কাউন্সিলর

  • গুলি লাগে তপনবাবুর পেটে। সঙ্গে সঙ্গে লুটিয়ে পড়েন তিনি। স্থানীয় মানুষ ও কাউন্সিলরের অনুগামীরা তাঁকে উদ্ধার করে সঙ্গে সঙ্গে রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি করেন।

গোটা দেশে লকডাউন চললেও উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জে গুলি চলায় বিরাম নেই। আর সোমবার সেই গুলির শিকার হলেন শহরেরই এক কাউন্সিলর। আহত তপন দাস রায়গঞ্জ পুরসভার ২২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর। গুলি তাঁর গায়ে লাগলেও এযাত্রায় প্রাণে বেঁচে গিয়েছেন তিনি। তাঁকে রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সোমবার দুপুরে ঘটনাটি ঘটেছে রায়গঞ্জ শ্মশান এলাকায়। ওই এলাকায় রয়েছে একটি ভাগাড়। সেই ভাগাড় থেকে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে বলে স্থানীয়রা কয়েকদিন ধরে অভিযোগ করছিলেন। এদিন দুপুরে সেই ভাগাড় পরিদর্শনে গিয়েছিলেন কাউন্সিলর তপনবাবু। তখন বাইকে করে এসে তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় ২ দুষ্কৃতী। তাদের মুখ হেলমেটে ঢাকা ছিল।

গুলি লাগে তপনবাবুর পেটে। সঙ্গে সঙ্গে লুটিয়ে পড়েন তিনি। স্থানীয় মানুষ ও কাউন্সিলরের অনুগামীরা তাঁকে উদ্ধার করে সঙ্গে সঙ্গে রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি করেন।

রায়গঞ্জ এলাকায় প্রকাশ্যে গুলি চলার ঘটনা নতুন নয়। এর আগেও একাধিক বার দিনে দুপুরে গুলি চলেছে সেখানে। কিন্তু কাউন্সিলরকে লক্ষ্য করে কে গুলি চালাল তা নিয়ে এখনো অন্ধকারে পুলিশ।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, ওই শ্মশানে করোনা আক্রান্তদের দেহ সৎকার করা হচ্ছে বলে কয়েকদিন ধরে গুজব ছড়াচ্ছিল। তার সঙ্গে এদিনের ঘটনার যোগ রয়েছে কি না জানতে তদন্তে নেমেছে পুলিশ।



বন্ধ করুন