বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > করোনা হাসপাতাল থেকে উদ্ধার হল আক্রান্তের ঝুলন্ত দেহ
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

করোনা হাসপাতাল থেকে উদ্ধার হল আক্রান্তের ঝুলন্ত দেহ

  • শুক্রবার সকালে হাসপাতালের একটি ফাঁকা ঘরে গোপাল ঘড়ুইয়ের ঝুলন্ত দেহ দেখতে পান হাসপাতালের কর্মীরা। সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয় পুলিশকে।

ফের করোনা রোগীর আত্মঘাতী হওয়ার ঘটনা ঘটল পশ্চিমবঙ্গে। করোনা আক্রান্ত এক ব্যক্তির ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হল পশ্চিম মেদিনীপুরের শালবনিতে। শুক্রবার সকালে শালবনির করোনা হাসপাতালে গোপাল ঘড়ুই নামে ওই ব্যক্তিকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান কর্মীরা। পুলিশ এসে দেহটি উদ্ধার করে। 

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গত ১২ অগাস্ট গোপালবাবুর করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এর পর তাঁকে শালবনির করোনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ১৭ অগাস্ট ফের তাঁর করোনা পরীক্ষার নমুনা পাঠানো হয়। ১৮ অগাস্ট সেই রিপোর্টও পজিটিভ আসে। এর পর থেকেই মানসিক অবসাদে ভুগতে শুরু করেন তিনি। 

শুক্রবার সকালে হাসপাতালের একটি ফাঁকা ঘরে গোপাল ঘড়ুইয়ের ঝুলন্ত দেহ দেখতে পান হাসপাতালের কর্মীরা। সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয় পুলিশকে। পুলিশ এসে দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায়। 

হাসপাতালের সুপার নিমাইচন্দ্র মণ্ডল জানিয়েছেন, ‘পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। ব্যক্তির অবসাদের কথা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের জানা ছিল না।’

ঘটনায় একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা দায়ের করে তদন্তে নেমেছে পুলিশ। করোনার জেরে অবসাদ, না কি এই মৃত্যুর পিছনে অন্য রহস্য রয়েছে তা জানতে তদন্ত চলছে। গোপালবাবুর দেহের ময়নাতদন্তের অপেক্ষায় রয়েছেন আধিকারিকরা। 

তবে এবারই প্রথম নয়, পশ্চিমবঙ্গে করোনা রোগীর আত্মহত্যার একাধিক ঘটনা ঘটেছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, করোনার ভীতি সমাজে এমন ভাবে ছড়িয়েছে যে আক্রান্ত হয়েছেন শুনেই অনেকে মানসিক ভাবে ভেঙে পড়ছেন। যদিও ভারতে করোনায় মৃত্যু হার ২ শতাংশেরও কম। 

বন্ধ করুন