বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > দাম মাত্র ৮৫০ টাকা, শিলিগুড়িতে খোলা বাজারে দেদার বিকোচ্ছে করোনা পরীক্ষার কিট!
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

দাম মাত্র ৮৫০ টাকা, শিলিগুড়িতে খোলা বাজারে দেদার বিকোচ্ছে করোনা পরীক্ষার কিট!

  • বিশেষজ্ঞদের ধারণা, কিটটাই ভুয়ো। নইলে করোনা পরীক্ষার কিট ওষুধের দোকানে না গিয়ে সাউন্ড বক্সের দোকানে চলে গেল কী করে?

পশ্চিমবঙ্গের বুকে খোলা বাজারে বিক্রি হচ্ছে করোনা পরীক্ষার Rapid Test Kit. তাও আবার সাউন্ড বক্স ভাড়া দেওয়ার দোকানে। ঘটনা শিলিগুড়ি শহরের। রবিবার একটি টিভি চ্যানেলে এখবর সম্প্রচারিত হতেই শোরগোল পড়ে। ঘটনায় দোকানমালিকের ভাইকে আটক করেছে পুলিশ। 

টেলিভিশন চ্যানেলের তরফে দাবি করা হয়েছে, শিলিগুড়ি পুরসভার ৩৭ নম্বর ওয়ার্ডের ওই সাউন্ড বক্স ভাড়া দেওয়ার দোকান থেকে করোনা পরীক্ষার কিট বিক্রি হচ্ছে বলে দিন কয়েক আগে খবর ছড়ায়। সেখানে গোপন ক্যামেরা নিয়ে হাজির হন এক সাংবাদিক। তার ছবিতে দেখা যাচ্ছে, দোকানের এক ব্যক্তি বলছেন, রক্তপরীক্ষার কিট বিক্রি হচ্ছে ৮৫০ টাকা প্রতি পিস দরে। তবে একসঙ্গে ১০০টি অর্ডার দিতে হবে। 

এই খবর শুনে আকাশ থেকে পড়েন করোনা চিকিৎসায় উত্তরবঙ্গের অফিসার অন স্পেশ্যাল ডিউটি সুশান্ত রায়। তিনি বলেন, এটাও আবার সম্ভব না কি? 

বিশেষজ্ঞদের ধারণা, কিটটাই ভুয়ো। নইলে করোনা পরীক্ষার কিট ওষুধের দোকানে না গিয়ে সাউন্ড বক্সের দোকানে চলে গেল কী করে? ঘটনায় মূল অভিযুক্ত অজিত সাহার ভাইকে আটক করেছে পুলিশ। 

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রেগনেন্সি টেস্টিং স্ট্রিপের মতো এই কিটে নির্দিষ্ট জায়গায় লালারসের নমুনা দিলে তা থেকে জানা যায় ব্যক্তি করোনা আক্রান্ত কি না। তবে করোনা পরীক্ষার জন্য লালারসের নমুনা সংগ্রহ যারতার কাজ নয়। সেজন্য দরকার দক্ষ টেকনিশিয়ান। তাছাড়া ওই কিটে রিপোর্ট নেগেটিভ এলেই ব্যক্তি করোনামুক্ত তা প্রমাণিত হয় না। তবে পজিটিভ এলে ধরে নেওয়া যেতে পারে তিনি আক্রান্ত। 

 

বন্ধ করুন