মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (ফাইল ছবি, সৌজন্য এএনআই)
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (ফাইল ছবি, সৌজন্য এএনআই)

Covid-19 Updates: আগেই দায় ঝেড়েছেন মমতা, এবার সব করোনা আক্রান্তের মৃত্যুর তদন্ত করবে না অডিট কমিটি

  • কিন্তু রাজ্যের এই সিদ্ধান্ত ঘিরে একাধিক ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে।

করোনাভাইরাস সংক্রান্ত মৃত্যুর কারণ খতিয়ে দেখতে বিশেষজ্ঞ গঠনের এক মাস ঘুরতে না ঘুরতেই নয়া সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য সরকার। এবার থেকে আর করোনা সংক্রান্ত সব মৃত্যুর ঘটনা খতিয়ে দেখবে না সেই কমিটি। এমনটাই জানালেন রাজ্য প্রশাসনের এক শীর্ষ কর্তা।

আরও পড়ুন : লকডাউনের রাতে চুপিসাড়ে দরজায় ত্রাণ পৌঁছে দিচ্ছেন বোলপুরের ‘মাস্টারমশাই’

করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের ঠিক কী কারণে মৃত্যু হয়েছে, তা জানতে এপ্রিলের গোড়ায় বিশেষজ্ঞ কমিটি গড়ে রাজ্য। তা নিয়ে যথেষ্ট বিতর্ক শুরু হয়। মৃত্যুর কারণে নির্ধারণে বিশেষজ্ঞ কমিটি তৈরির যৌক্তিকতা নিয়ে প্রশ্ন তোলে কলকাতায় আসা কেন্দ্রীয় দলও। এরইমধ্যে গত বুধবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, তিনি ডেথ অডিট কমিটি অর্থাৎ বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন করেননি। এমনকী কে কে সেই কমিটির সদস্য, সে বিষয়ে তাঁর কোনও ধারণা নেই। পুরো বিষয়টি দেখছেন মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা। তখনই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছিল, বিতর্কের মুখে পড়ে কি নিজের ঘাড় থেকে দায় ঝেড়ে ফেলতে চাইছেন মুখ্যমন্ত্রী? তাহলে কি কমিটির কাজের এক্তিয়ার কমানো হবে?

আরও পড়ুন Lockdown 2.0: সোমবার থেকে রাজ্যের এই জেলাগুলিতে শর্তসাপেক্ষে খুলবে দোকান, চলবে বাস

যদিও বৃহস্পতিবার নবান্নে সেরকম কোনও আভাস দেননি মুখ্যসচিব। বরং কমিটির পেশ করা রিপোর্ট অনুযায়ী রাজ্যে করোনায় মৃত্যুর পরিসংখ্যান প্রকাশ করেন তিনি। পাশাপাশি, কী কারণে অডিট কমিটি গঠন করা হয়েছে, বৃহস্পতিবার নবান্নে সেই ব্যাখ্যা দেন মুখ্যসচিব। তিনি জানান, করোনা (Covid-১৯) একটি নতুন রোগ। সেজন্য বিশেষজ্ঞ কমিটি তৈরি করা হয়েছে। কীভাবে রোগ ছড়াচ্ছে, কীভাবে মানবদেহে প্রভাব ফেলছে, কীভাবে চরিত্র পরিবর্তন করছে, তা বিস্তারিতভাবে জানার জন্য কমিটি গঠন করা হয়েছে। তবে সেই কমিটি ডেথ সার্টিফিকেট খতিয়ে দেখছে না। তারা শুধু ডেথ কেস অডিট করছে।

আরও পড়ুন : BJP কার্যালয়ে মজুত বস্তা বস্তা রেশনের চাল!

সেই সাংবাদিক বৈঠকের পর কিছুক্ষণ পরই বিশেষজ্ঞ কমিটি নিয়ে নয়া সিদ্ধান্ত নেয় রাজ্য। ওই কর্তা বলেন, 'কমিটি কাজ করবে। তবে সব মৃত্যুর ঘটনা তাদের কাছে পাঠানো হবে না। তারা কয়েকটি মৃত্যুর ঘটনা বেছে নিয়ে হাসপাতাল থেকে প্রয়োজনীয় তথ্য চাইবে এবং রাজ্যকে সুপারিশ দেবে।'

আরও পড়ুন : ছত্তিশগড় থেকে হেঁটে কলকাতা পৌঁছলেন ৭ শ্রমিক, ভাত পেয়ে ভাসলেন চোখের জলে

কিন্তু রাজ্যের সেই সিদ্ধান্ত ঘিরে একাধিক ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে। বিশেষত, এতদিন যেভাবে করোনার জেরে মৃত্যু ও করোনায় আক্রান্ত অবস্থায় মৃত্যুর মধ্যে প্রভেদ করা হত, তা কি এবার উঠে যাবে? আর সব Covid-19 আক্রান্তের মৃত্যুর কারণ হিসেবে করোনাভাইরাস চিহ্নিত করা হবে? আপাতত রাজ্যের তরফে সে বিষয়ে নির্দিষ্টভাবে কিছু জানানো হয়নি। ফলে আবারও বিশেষজ্ঞ কমিটির কাজ নিয়ে জট আরও বাড়ল।:

বন্ধ করুন