করোনা মুক্তির পর বাড়ি ফিরছেন এক বৃদ্ধ (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
করোনা মুক্তির পর বাড়ি ফিরছেন এক বৃদ্ধ (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

Covid-19 Updates: কেন্দ্রের 'ভ্রান্ত মূল্যায়ন'-এ চারের পরিবর্তে ১০ জেলা রেড জোনে, চিঠি রাজ্যের

রাজ্যের দাবি, কেন্দ্রের মাপকাঠি অনুযায়ী চারটি জেলা রেড জোনে থাকার কথা।

কেন্দ্রের বর্তমান মাপকাঠি অনুযায়ী চারটি জেলার রেড জোনে থাকার কথা। কিন্তু ১০ টি জেলাকে রেড জোন আওতাভুক্ত করা হয়েছে। যা নয়াদিল্লির ভ্রান্ত মূল্যায়ন বলে দাবি করে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব প্রীতি সুদানকে চিঠি লিখলেন রাজ্যের স্বাস্থ্য সচিব বিবেক কুমার।

আরও পড়ুন : Covid-19 treatment: করোনার দাওয়াই পরীক্ষার নেতৃত্বে ভারতীয় বংশোদ্ভূত বিজ্ঞানী

বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে সব রাজ্যকে চিঠি লেখা হয়। তাতে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব জানান, বাংলার ১০ টি জেলাকে রেড জোন হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। সেই জেলাগুলি হল - কলকাতা, হাওড়া, উত্তর ২৪ পরগনা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিম মেদিনীপুর, কালিম্পং, জলপাইগুড়ি, দার্জিলিং ও মালদহ।

আরও পড়ুন : Zoom vs Google- এবার Gmail অ্যাকাউন্ট থাকলেই ব্যবহার করতে পারবেন ভিডিও অ্যাপ Meet

অথচ স্বাস্থ্য মন্ত্রকের সেই তালিকার কয়েক ঘণ্টা আগেই রাজ্যর মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা সাংবাদিক বৈঠকে জানিয়েছিলেন, কলকাতা, হাওড়া, উত্তর ২৪ পরগনা ও পূর্ব মেদিনীপুর। ফলে ধোঁয়াশা তৈরি হয়। শুধু তাই নয়, মঙ্গলবার সাংবাদিক বৈঠকে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছিল, কালিম্পং-সহ দেশের ১৭টি জেলায় গত ২৮ দিনে নতুন করে করোনা আক্রান্তের হদিশ পাওয়া যায়নি। তাহলে তিনদিনে এমন কী হল যে কালিম্পংকে সোজা রেড জোনের আওতাভুক্ত করা হয়েছে? তা নিয়ে একাধিক মহলে প্রশ্ন উঠতে শুরু করে।

আরও পড়ুন : ব্যাঙ্ক-ATM-রেল-বিমান, ১ মে থেকে চালু হল একাধিক নয়া নিয়ম, জেনে নিন

এরইমধ্যে বাংলার ১০ টি জেলাকে রেড জোনভুক্ত করা নিয়ে শুক্রবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিবকে চিঠি লিখে রাজ্যের স্বাস্থ্য সচিব বলেন, 'এটা ভ্রান্ত মূল্যায়ন। কেন্দ্রের বর্তমান মাপকাঠি অনুযায়ী শুধুমাত্র চারটি জেলা - কলকাতা, হাওড়া, উত্তর ২৪ পরগনা ও পূর্ব মেদিনীপুর।' কোন যুক্তিতে এই দাবি করছেন, তার জন্য রাজ্যের সবকটি জেলার পরিসংখ্যান তুলে ধরেন তিনি। সেখানে জানানো হয়েছে, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, উত্তর দিনাজপুর, দক্ষিণ দিনাজপুর, বীরভূম, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া ও ঝাড়গ্রামে কোনও করোনা আক্রান্তের হদিশ পাওয়া যায়নি। পাশাপাশি কলাকাতা (মোট আক্রান্ত ৪৮৯), হাওড়া (মোট আক্রান্ত ১৭৬) ও উত্তর ২৪ পরগনায় (মোট আক্রান্ত ১২২) নয়া করোনা আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া গিয়েছে বৃহস্পতিবার। রাজ্যের দাবি অনুযায়ী, অপর রেড জোন পূর্ব মেদিনীপুরে বুধবার নয়া করোনা আক্রান্তের হদিশ পাওয়া গিয়েছিল। সেখানে এখনও পর্যন্ত মোট ৩৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে।

রাজ্যের দাবিমতো কমলা জোনে থাকা জেলাগুলির পরিসংখ্যান :

জেলামোট আক্রান্তশেষ নয়া আক্রান্তের হদিশ
কালিম্পং২ এপ্রিল
জলপাইগুড়ি৪ এপ্রিল
মুর্শিদাবাদ১৬ এপ্রিল
নদিয়া২০ এপ্রিল
দার্জিলিং২১ এপ্রিল
পূর্ব বর্ধমান২৩ এপ্রিল
পশ্চিম বর্ধমান১০২৩ এপ্রিল
পশ্চিম মেদিনীপুর১২২৮ এপ্রিল
মালদা২৮ এপ্রিল
হুগলি৩১৩০ এপ্রিল
দক্ষিণ ২৪ পরগনা২৫২৮ এপ্রিল

তবে রাজ্যের দাবি স্বপক্ষে কেন্দ্রের তরফে কী প্রতিক্রিয়া আসে, সেদিকেই তাকিয়ে রয়েছে সংশ্লিষ্ট মহল। অনেকের আশঙ্কা, আবারও কেন্দ্র-রাজ্য সংঘাতের সম্ভাবনা তৈরি হল।

বন্ধ করুন