বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > পুর পরিষেবা দিতে নাকি ‘লড়াই’, অথচ করোনার তোয়াক্কা না করেই জমায়েত প্রার্থীদের
Kolkata, India - October 3, 2021: Trinamool Congress (TMC) supporters celebrate the winning of West Bengal Chief Minister and Trinamool Congress (TMC) Chief Mamata Banerjee from Bhabanipur Assembly By-election in front of her Kalighat residence at Hazra in Kolkata, India, on Sunday, October 3, 2021. (Photo by Samir Jana/Hindustan Times) (Samir Jana/HT Photo)

পুর পরিষেবা দিতে নাকি ‘লড়াই’, অথচ করোনার তোয়াক্কা না করেই জমায়েত প্রার্থীদের

  • এদিন বিধাননগর, চন্দননগরে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়াকে কেন্দ্র করে কার্যত শিকেয় উঠল কোভিজ বিধি।

রাজ্যে উদ্বেগজনক ভাবে বেড়েছে করোনা সংক্রমণ। তা নিয়ন্ত্রণে সোমবার থেকে বিধিনিষেধ জারি করেছে সরকার। সমস্ত স্কুল-কলেজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার পাশাপাশি ট্রেনে যাত্রী পরিবহন এবং সরকারি-বেসরকারি অফিসগুলিতে কর্মীদের সংখ্যায় রাশ টেনেছে সরকার। এই অবস্থায় বিধাননগর, চন্দননগরে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়াকে কেন্দ্র করে কার্যত শিকেয় উঠল কোভিদ বিধি।

সমর্থক তো বটেই, প্রার্থীদের মুখেও এদিন দেখা গেল না মাস্ক। বিধাননগরের মহকুমা শাসকের অফিসে মনোনয়ন পত্র জমা দিতে গিয়েছিলেন তৃণমূল প্রার্থী জয়দেব নস্কর, সব্যসাচী দত্ত-সহ একাধিক তৃণমূল প্রার্থী। তাঁদের মনোনয়নকে ঘিরে এদিন বিধাননগরে কার্যত জনসমাগম দেখা দেয়। বিপুল সংখ্যায় হাজির হয়েছিলেন তৃণমূল কর্মী-সমর্থকরা। যেখানে করোনা সংক্রমণ রোখা নিয়ে সরকার বিধিনিষেধ জারি করছে, স্কুল-কলেজ বন্ধ করছে সেখানে শাসক দলের লোকেরা কীভাবে বিধিনিষেধ ভাঙছে তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিরোধীরা। তবে তাঁরাও পিছিয়ে ছিলেন না।

যদিও এ বিষয়ে জয়দেব নস্কর বলেছেন, ' আমি কাউকে আসতে বলিনি, কর্মী-সমর্থকরা নিজেরাই আমার সমর্থনে চলে এসেছেন। মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে আমার সঙ্গে এসেছেন।'

অন্যদিকে, চন্দননগরেও একই ছবি দেখা গিয়েছে। তৃণমূলের ৩৩ জন প্রার্থী তাঁদের মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন চন্দননগরের মহকুমা শাসকের অফিসে। তাঁদের ঘিরেও এদিন সেখানে জনসমাগম দেখা গিয়েছে কার্যত কোভিড বিধি না মেনে।

বন্ধ করুন