বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘‌অমর রহে’‌, লাদাখে দুর্ঘটনায় মৃ্ত্যু জওয়ানের, নিথর দেহ ফিরল তমলুকের গ্রামে
গ্রামে নিয়ে আসা হচ্ছে জওয়ানের দেহ।

‘‌অমর রহে’‌, লাদাখে দুর্ঘটনায় মৃ্ত্যু জওয়ানের, নিথর দেহ ফিরল তমলুকের গ্রামে

পাশের গ্রামের এক বাসিন্দা কার্তিক নায়েক জানান, ‘‌এলাকায় দাদার খুব পরিচিতি ছিল। উনি খুবই ডিসিপ্লিন মেনটেন করে চলতেন।'

‌লাদাথে টহলরত অবস্থায় পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় সিআরপিএফ জওয়ান নন্দলাল রানার। বৃহস্পতিবার সকালে তাঁর কফিনবন্দি দেহ এসে পৌঁছাল তমলুকের গ্রামের বাড়িতে। তাঁর প্রয়াণে শোকের ছায়া নেমে এসেছে গ্রামের বাড়িতে।

গত সোমবার লাদাখে টহলরত অবস্থায় দুর্ঘটনার মুখে পড়েন নন্দলাল রানা-সহ কয়েকজন জওয়ান। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ৩৬ বছরের জওয়ানের। বাকি তিনজন গুরুতর জখম অবস্থায় হাসপাতালে ভরতি রয়েছেন। নন্দবাবুর নিথর দেহ তমলুকে গ্রামের বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। বৃহস্পতিবার তমলুকের হরশংকর গ্রামে তাঁর দেহ নিয়ে আসা হলে গ্রামবাসীরা ঘরের ছেলেছে শেষ শ্রদ্ধা জানান। এলাকার বাসিন্দারা জাতীয় পতাকা নিয়ে বাইক মিছিল করে শহিদ জওয়ানের উদ্দেশ্যে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন। এদিন গ্রামের প্রচুর মানুষ জড়ো হন নন্দবাবুকে শেষ শ্রদ্ধা জানানোর জন্য। এদিন নন্দবাবুর দেহ যখন তাঁর গ্রামে এসে পৌঁছায়, তখন এলাকার বাসিন্দারা ‘‌বীর জওয়ান অমর রহে’‌ বলে স্লোগান দিতে থাকেন।

শহিদ জওয়ানকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে এসে পাশের গ্রামের এক বাসিন্দা কার্তিক নায়েক জানান, ‘‌এলাকায় দাদার খুব পরিচিতি ছিলেন। উনি খুবই ডিসিপ্লিন মেনটেন করে চলতেন। এলাকার বিভিন্ন সামাজিক কাজে এগিয়ে আসতেও ওনাকে দেখা গিয়েছে। দাদা নেই। তাঁকে খুব মিস করছি।’‌

বন্ধ করুন