বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > গ্রাহকদের তথ্য জালিয়াতি করে লক্ষ লক্ষ টাকা 'প্রতারণা',ধৃত ব্যাঙ্কের অফিসার-সহ ৮
গ্রাহকদের তথ্য জালিয়াতি করে লক্ষ লক্ষ টাকা প্রতারণা, ‌ধৃত ব্যাঙ্কের অফিসার-সহ ৮।
গ্রাহকদের তথ্য জালিয়াতি করে লক্ষ লক্ষ টাকা প্রতারণা, ‌ধৃত ব্যাঙ্কের অফিসার-সহ ৮।

গ্রাহকদের তথ্য জালিয়াতি করে লক্ষ লক্ষ টাকা 'প্রতারণা',ধৃত ব্যাঙ্কের অফিসার-সহ ৮

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গ্রাহকদের আধার ও প্যান কার্ড নকল করে প্রতারণা চলছিল।

গ্রাহকদের তথ্য জালিয়াতি করে লক্ষ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ উঠল ব্যাঙ্ক অফিসার ও কর্মীদের বিরুদ্ধে। ব্যাঙ্ক জালিয়াতির অভিযোগে ওই রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের অফিসার, কর্মী-‌সহ মোট ৮ জনকে গ্রেফতার করল অশোকনগর থানার পুলিশ। গ্রাহকদের আধার ও প্যান কার্ড শুধু নকল করাই নয়, অন্যের চেক ভাঙিয়ে ব্যাঙ্ক থেকে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ওই আধিকারিকদের বিরুদ্ধে। ঘটনায় শোরগোল পড়ে গিয়েছে অশোকনগরের বেড়াবেড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের ঈশ্বরীগাছার ইন্ডিয়ান ব্যাঙ্কের শাখায়।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃত ব্যাঙ্ক অফিসারের নাম অভিজিৎ দাস। অভিযুক্ত হুগলির বাসিন্দা। অপর ধৃতের নাম শান্তনু ঘোষ। অভিযুক্ত ওই ব্যক্তি ব্যাঙ্কেরই কর্মী। এছাড়াও অন্যান্য ধৃতেরা এই জালিয়াতির সঙ্গে যুক্ত। আর কে কে এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত রয়েছে, তা তদন্ত করে দেখছে পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গ্রাহকদের আধার ও প্যান কার্ড নকল করে প্রতারণা চলছিল। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, এই ঘটনায় ব্যাঙ্কের লোকও জড়িত রয়েছেন। তবে এই ঘটনায় আর কেউ যুক্ত রয়েছে কিনা, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

গ্রাহকদের অভিযোগ, ব্যাঙ্কের চেকবুক তাঁদের কাছেই রয়েছে, অথচ তাঁদের অ্যাকাউন্ট থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা উধাও হয়ে গিয়েছে। ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে কারোর ১০ লক্ষ টাকা গায়েব হয়ে গিয়েছে, তো কারোর ৬০ লক্ষ টাকা উধাও হয়ে গিয়েছে।

প্রতারিত গ্রাহকদের অভিযোগ, তাঁরা তাঁদের জীবনের সমস্ত পুঁজি ব্যাঙ্কের অ্যাকাউন্টে জমা রেখেছিলেন। কিন্তু হঠাৎই তাঁদের মোবাইলে টাকা তুলে নেওয়ার মেসেজ আসতে শুরু করে। এরপর গ্রাহকরা ব্যাঙ্কে গিয়ে জানতে পারেন যে, সত্যি তাঁদের অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা তুলে নেওয়া হয়েছে। অথচ গ্রাহকদের অভিযোগ, এটিএম কার্ড থেকে শুরু করে ব্যাঙ্কের পাসবই সমস্ত কিছু তাঁদের কাছে রয়েছে। এমনকী, এরমধ্যে তাঁরা ব্যাঙ্ক থেকে টাকাও তোলেননি। অথচ তাঁদের অ্যাকাউন্ট থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা উধাও হয়ে গিয়েছে।

বন্ধ করুন