বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > কমছে অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যা, বাড়ছে সুস্থতার হার, করোনা–কালে আশার আলো পশ্চিমবঙ্গে
প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

কমছে অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যা, বাড়ছে সুস্থতার হার, করোনা–কালে আশার আলো পশ্চিমবঙ্গে

  • এদিন সুস্থতার হার কিছুটা বেড়ে হয়েছে ৯৪.‌৪৫ শতাংশ। বুধবার রাজ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২৭৬৭ জন করোনা রোগী আর নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ২২৯৩ জন।

পশ্চিমবঙ্গে ক্রমে কমছে অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যা। বুধবার আরও ৫২০টি অ্যাকটিভ কোভিড কেস কমে বর্তমান পরিসংখ্যান দাঁড়িয়েছে ২০১৪৩–এ। একইসঙ্গে এদিন সুস্থতার হার কিছুটা বেড়ে হয়েছে ৯৪.‌৪৫ শতাংশ। বুধবার রাজ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২৭৬৭ জন করোনা রোগী আর নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ২২৯৩ জন। এ পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গ মোট করোনা আক্রান্ত হলেন ৫ লক্ষ ২৮ হাজার ২১১ জন আর সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪ লক্ষ ৯৮ হাজার ৮৭৭ জন।

একইসঙ্গে এদিন নমুনা পরীক্ষার সংখ্যাও কিছুটা বাড়ানো হয়েছে। বুধবার মোট ৪২ হাজার ২৫৬টি নমুনা করোনার জন্য পরীক্ষা করা হয়। আর তার মধ্যে ৮.‌০৮ শতাংশ নমুনা পজিটিভ এসেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে সবচেয়ে বেশি মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন দুই জেলার মানুষ। কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগনা। এবং দুটি জেলাতেই এদিন সংক্রমিতদের সংখ্যা একই, আর তা হল— ৫৪৭। আর বুধবার কলকাতায় করোনাকে হারিয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৬৭১ জন। উত্তর ২৪ পরগনায় এদিন সুস্থতার সংখ্যা ছিল ৬২৮। দক্ষিণ ২৪ পরগনায় এদিন আক্রান্ত হয়েছেন ১৬৪ জন ও করোনাকে জয় করেছেন ১৮৯ জন।

এদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় মারণ ভাইরাসে প্রাণ হারিয়েছেন ৪৬ জন রাজ্যবাসী। তার মধ্যে ১৭ জনই কলকাতার আর ১১ জন উত্তর ২৪ পরগনার বাসিন্দা। এ পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গে করোনার জেরে মোট ৯১৯১ জনের মৃত্যু হল। যদিও তার মধ্যে ৭৭১৪ জনের (‌৮৩.‌৯ শতাংশ)‌ মৃত্যু হয়েছে কোমর্বিডিটির জেরে। এমনই জানিয়েছে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর। এই মুহুর্তে পশ্চিমবঙ্গে শুধু করোনা রোগীদের জন্য রয়েছে মোট ১৩ হাজার ৫৮৮টি বেড। তার মধ্যে ১৯.‌৪৯ শতাংশ বেডে ভর্তি রয়েছেন করোনা রোগীরা। উল্লেখ্য, ঠিক একমাস আগে, ১৬ নভেম্বর মোট কোভিড বেডের মধ্যে রোগী ভর্তি ছঝিল ৩০.‌০২ শতাংশ বেডে।

বন্ধ করুন