বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Eve teasing: বান্ধবীকে ইভটিজিং, প্রতিবাদ জানিয়ে হামলার শিকার ছাত্রী, পাশে এসডিপিও মিতুন দে

Eve teasing: বান্ধবীকে ইভটিজিং, প্রতিবাদ জানিয়ে হামলার শিকার ছাত্রী, পাশে এসডিপিও মিতুন দে

মিতুন দে, এসডিপিও ডায়মন্ড হারবার (টুইটার)

শনিবার পরীক্ষা দিয়ে ফিরছিলেন দক্ষিণ ২৪ পরগনার উস্তি থানার দেউলার নাজরা এলাকার বাসিন্দা হাইমাদ্রাসার ছাত্রী ওই দুই ছাত্রী। তাঁদের পরীক্ষা কেন্দ্র ছিল ডায়মন্ড হারবার থানার অধীন মশাটের নবসংগ্রামপুরের একটি স্কুলে।

পরীক্ষা দিয়ে ফেরার ইভটিজিংয়ের শিকার এক ছাত্রী। প্রতিবাদ করায় নিগৃহীত হতে হল তার বান্ধবীকে। শুধু তাই নয় ওই বান্ধবীর বাড়িতে গিয়েও হামলায় চালায় অভিযুক্তের পরিবার। ঘটনার কথা জানতে পেরে নিগৃহীতার বাড়িতে পৌঁছে যান ডায়মন্ড হারবারের এসডিপিও মিতুন কুমার দে। ছাত্রীর জন্য নিরাপত্তার ব্যবস্থাও করেছেন তিনি।

শনিবার পরীক্ষা দিয়ে ফিরছিলেন দক্ষিণ ২৪ পরগনার উস্তি থানার দেউলার নাজরা এলাকার বাসিন্দা হাইমাদ্রাসার ছাত্রী ওই দুই ছাত্রী। তাঁদের পরীক্ষা কেন্দ্র ছিল ডায়মন্ড হারবার থানার অধীন মশাটের নবসংগ্রামপুরের একটি স্কুলে। পরীক্ষা দিয়ে ফেরার সময় এলাকার এক যুবক আরিয়ান মোল্লা এক ছাত্রীর উদ্দেশে আপত্তিকর কথা বলে। তাঁর প্রতিবাদ করে ছাত্রীর বান্ধবী। পথে কর্তব্যরত পুলিশকর্মীকে জানালে ওই যুবককে ধমক দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়।

পুলিশকে জানানোর প্রতিশোধ নিতে রাতে ওই প্রতিবাদী ছাত্রীর বাড়িতে তাঁর পরিবারে লোকজন ও প্রতিবেশীদের নিয়ে হাজির হয় আরিয়ান। তাঁর পরিবার হুমকি দেয় এবং মারধরও করে বলে অভিযোগ। এই খবর এসডিপিও-র কানে পৌঁছতেই রবিবার সকালে তিনি বাহিনী নিয়ে হাজির হন প্রতিবাদী ছাত্রীর বাড়ি। আতঙ্কিত ছাত্রীর মনোবল বাড়াতে তার হাতে তুলে দেন বই, পেন ও চকলেট। ছাত্রী অভিভাবকদেরও তিনি অভয় দেন। শুধু তাই এই ধরনের প্রতিবাদ বারবার করতে পরামর্শ দেন এসডিপিও। ছাত্রীর নিরাপত্তায় দু'জন সিভিক ভলেন্টিয়ারও নিয়োগ করে তিনি। যাঁরা পরীক্ষা চলাকালীন তার সঙ্গে স্কুলে যাবে।

এসডিপিও বলেন,'আরিয়ানের খোঁজে তল্লাশি চলছে। আরিয়ানের পরিবারের কয়েকজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদও চলছে।' এই ঘটনায় এসডিপিও-র ভূমিকায় খুশি ছাত্রী পরিবার। তাঁরা ডায়মন্ড হারবার পুলিশকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

বন্ধ করুন