বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > স্বাস্থ্য কেন্দ্রের পাশেই রাতের অন্ধকারে চলছে চটুল নাচ, ক্ষুব্ধ বাসিন্দারা
অশ্লীল নাচ আর জুয়ার আসর
অশ্লীল নাচ আর জুয়ার আসর

স্বাস্থ্য কেন্দ্রের পাশেই রাতের অন্ধকারে চলছে চটুল নাচ, ক্ষুব্ধ বাসিন্দারা

বিজেপির জেলা সাধারণ সম্পাদক কিষাণ কেডিয়া জানান, তৃণমূলের নেতাদের মদতেই এই ধরনের নোংরা কাজ চলছে।

হাড় কাঁপানো শীত। শীতের রাতে অন্ধকার নেমে এলেই শুরু হয়ে যায় অশ্লীল নাচ আর জুয়ার আসর। স্বাস্থ্য কেন্দ্রের পাশে এই ধরনের অসামাজিক কাজ লাগাতার হতে থাকায় তা ভালোভাবে নিচ্ছেন না এলাকার স্থানীয় বাসিন্দারা। তৃণমূল নেতাদের মদতেই এই সব অপসংস্কৃতি চলছে বলে বিজেপির অভিযোগ। যদিও যাবতীয় অভিযোগ নস্যাৎ করে দিয়েছে তৃণমূল।

মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকার হরদমপুর প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্র। ওই স্বাস্থ্য কেন্দ্রের ঠিক পাশেই পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে চলছে অশ্লীল নাচ ও জুয়ার আসর। এলাকার বাসিন্দাদের কারও কাছেই এই কুকর্ম সম্পর্কে অজানা নয়। তাঁদের অভিযোগ, রাত নামলেই এখানে বসে চটুল নাচের আসর। এর পিছনে এলাকার তৃণমূল নেতাদের একাংশের ইন্ধন রয়েছে। এই নাচের আসরকে কেন্দ্র করে এলাকায় দুষ্কৃতীদের আনাগোনা আরও বেড়েই চলেছে। ফলে ভয়ে দিন কাটাতে হচ্ছে এলাকার বাসিন্দাদের। এলাকার প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ গোটা বিষয়টি উর্ধতন কর্তৃপক্ষের নজরে আনবেন বলেই জানিয়েছেন। স্বাস্থ্য কেন্দ্রের পাশের মাঠে মদের বোতল, তাস ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকায় এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

এই ঘটনার ব্যাপারে ইতিমধ্যে সরব হয়েছে বিজেপি। বিজেপির জেলা সাধারণ সম্পাদক কিষাণ কেডিয়া জানান, তৃণমূলের নেতাদের মদতেই এই ধরনের নোংরা কাজ চলছে। এটাই তৃণমূলের সংস্কৃতি। অন্যদিকে তৃণমূলের ব্লক সভাপতি হজরত আলি জানান, এই ধরনের অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। ওই এলাকায় অসামাজিক কর্ম যে চলছে, সে বিষয়ে খবর রয়েছে। তবে এই ধরনের কাজ তৃণমূল সমর্থন করে না।

বন্ধ করুন