বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > মূর্তি নদীতে স্নান করতে নেমেছিলেন মহিলা চা শ্রমিক, শুঁড়ে তুলে আছাড় মারল হাতি
হাতির হানায় মৃত্য়ু মহিলার (প্রতীকী ছবি)
হাতির হানায় মৃত্য়ু মহিলার (প্রতীকী ছবি)

মূর্তি নদীতে স্নান করতে নেমেছিলেন মহিলা চা শ্রমিক, শুঁড়ে তুলে আছাড় মারল হাতি

  • বাসিন্দাদের মতে, চাপড়ামারির জঙ্গল থেকেই বেরিয়ে এসেছিল হাতিটি। ওই হাতির মুখোমুখি হয়ে যান মহিলা চা শ্রমিক।

ডুয়ার্সের মূর্তি নদীতে স্নান করতে নেমে হাতির হানায় প্রাণ গেল এক মহিলা চা শ্রমিকের। মৃত মহিলার নাম তেতরি ওরাও। ৪৫ বছর বয়সী ওই মহিলা ডুয়ার্সের মেটেলি ব্লকের চালসা চা বাগানের শ্রমিক ছিলেন। স্থানীয় সূত্রে খবর, অন্যান্যদিনের মতোই তিনি চা বাগানের কাজ সেরে বিকেল ৪টে নাগাদ মূর্তি নদীতে স্নান করতে যান। অন্যান্য কয়েকজন শ্রমিকও তাঁর সঙ্গে ছিলেন। এই চা বাগান, রাস্তা, নদী সবটাই চেনা তাঁদের কাছে। কিন্তু এই চেনা নদীর পাড়ে মৃত্যু যে এমন লুকিয়ে আছে সেকথা ভাবতে পারেননি তাঁরা। 

আচমকাই এদিন সেই নদীতে দাঁতাল হাতি জল খেতে আসবে এটা আঁচ করতে পারেননি কেউই। প্রত্যক্ষদর্শীরা কিছুতেই ভুলতে পারছেন না সেই ভয়াবহ দৃশ্য। বাসিন্দাদের মতে, চাপড়ামারির জঙ্গল থেকেই বেরিয়ে এসেছিল হাতিটি। ওই হাতির মুখোমুখি হয়ে যান মহিলা চা শ্রমিক। তিনি ছুটে পালানোরও চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তিনি পালাতে পারেননি। হাতির নাগালের মধ্যে পড়ে যান তিনি। এরপর একেবারে শুঁড়ে তুলে আছাড় মারে ওই হাতিটি। এর জেরে মৃত্যু হয় ওই মহিলার। এদিকে হাতির এই রুদ্র রূপ দেখে যে যেদিকে পারে পালায়। পরে বনদফতরের লোকজন ও মেটেলি থানার পুলিশ গিয়ে দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। গোটা ঘটনায় চা শ্রমিকদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। পাশাপাশি অনেকেই ওই নদীতে স্নান করতে যান। তাঁদের মধ্যেও আতঙ্ক দানা বেঁধেছে।

 

বন্ধ করুন