বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > শ্বাসকষ্ট/টিকিট/ভাইপো/লোভ -'বেসুরো'-দের জন্য দেবাংশুর ভাইরাল 'স্বীকারোক্তি ফর্ম'
'বেসুরো'-দের জন্য দেবাংশুর ভাইরাল 'স্বীকারোক্তি ফর্ম'। (ছবি সৌজন্য ফেসবুক)
'বেসুরো'-দের জন্য দেবাংশুর ভাইরাল 'স্বীকারোক্তি ফর্ম'। (ছবি সৌজন্য ফেসবুক)

শ্বাসকষ্ট/টিকিট/ভাইপো/লোভ -'বেসুরো'-দের জন্য দেবাংশুর ভাইরাল 'স্বীকারোক্তি ফর্ম'

  • খোঁচা দেবাংশুর।

‌ভোট মিটতেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যাওয়া দলবদলুরা ফের বেসুরো গাইতে শুরু করেছেন। কেউ কেউ বিজেপি ছেড়ে দিয়েছেন।কেউ আবার তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে ক্ষমাও চাইছেন। এই পরিস্থিতিতে তৃণমূল নেতা দেবাংশু ভট্টাচার্যের একটি পোস্ট ফের সোশ্যাল মিডিয়ায় জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। যা সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। 

বিধানসভা ভোটের আগে দেবাংশু ভট্টাচার্যের দেওয়া ‘‌খেলা হবে’‌ স্লোগান গোটা রাজ্যকে আলোড়িত করেছিল। দেবাংশু নিজে অনেকসময়ে সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, তিনি নিজে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভক্ত এবং তৃণমূল নেত্রীর দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়েই তাঁর এই ভোটের ময়দানে নেমে প্রচার করা। ভোটের আগে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় প্রচারে গিয়ে এই সব দলবদলু নেতাদের বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন দেবাংশু। ভোটের পর সেই সব দলবদলু নেতারাই যখন আবার বেসুরো গাইতে শুরু করেছেন, তখন আর চুপ করে থাকতে পারলেন না বালির এই তৃণমূল নেতা।

দলবদলুদের জন্য আস্ত একটি স্বীকারোক্তি ফর্ম তৈরি করে ফেললেন তিনি। সেই ফর্মে নিজের নাম, বিধানসভা, লোকসভা কেন্দ্র লেখার যেমন জায়গা আছে, তেমনই কী কারণে বেসুরো হয়েছিলেন আবার কী কারণেই বা সুরে ফিরতে চান, তা বিভিন্ন অপশান দিয়ে জানতে চাওয়া হয়েছে। পাশাপাশি তাঁরা নিজেদেরকে ধান্দাবাজ মনে করেন কিনা, তাও জানতে চাওয়া হয়েছে। মোটের ওপর দেবাংশুর ফর্ম এখন সোশ্যাল মিডিয়া খুবই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।অনেকে এই বিষয়ে কমেন্টও করেছেন।

উল্লেখ্য, গত বিধানসভা নির্বাচনে দেবাংশুর দেওয়া ‘‌খেলা হবে’‌ স্লোগান তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর প্রতিটি জনসভায় ব্যবহার করেছিলেন। সেই সঙ্গে একটি ফুটবলও দিয়েছিলেন প্রতিটি সভায়। শুধু তৃণমূল নেত্রী নন, এই স্লোগান নির্বাচনের আগে সবার মুখে মুখে ঘুরত।

বন্ধ করুন