বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > 'ত্রাণের ছবিও চুরি করতে হচ্ছে', বিজ্ঞান মঞ্চের ছবি পোস্ট করে রাজ্যের গুণগান ডেরেকের
বিজ্ঞান মঞ্চের ছবি পোস্ট করে রাজ্যের গুণগান ডেরেকের (ছবি সৌজন্য ফেসবুক)
বিজ্ঞান মঞ্চের ছবি পোস্ট করে রাজ্যের গুণগান ডেরেকের (ছবি সৌজন্য ফেসবুক)

'ত্রাণের ছবিও চুরি করতে হচ্ছে', বিজ্ঞান মঞ্চের ছবি পোস্ট করে রাজ্যের গুণগান ডেরেকের

  • ফেসবুকে এখনও সেই ছবিগুলি রয়েছে। সেগুলি মুছে দেননি ডেরেক।

আমফান বিধ্বস্ত সুন্দরবনে ত্রাণ বিলি করেছিল পশ্চিমবঙ্গ বিজ্ঞান মঞ্চ। আর সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে রাজ্য সরকারের ঢাক পেটানোর অভিযোগ উঠল তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্যসভার সাংসদ ডেরেক ও'ব্রায়েনের বিরুদ্ধে।

গত ২০ মে আমফান আছড়ে পড়ার পর বিভিন্ন এলাকার বিধ্বস্ত মানুষদের সাহায্যে এগিয়ে এসেছে অসংখ্য স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। ত্রাণ বিলি করেছে বিজ্ঞান মঞ্চও। এরইমধ্যে গত ৩১ মে তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদের ভেরিফায়েড ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে ত্রাণ বিলির চারটি ছবি পোস্ট করা হয়। ক্যাপশনে লেখা, ‘এক সপ্তাহ আগে তোলা কয়েকটা ছবি শেয়ার করছি। সুন্দরবন একটা ইউনেস্কোর হেরিটেজ সাইট। আমফানে ক্ষতিগ্রস্ত বা ভেঙে পড়া ১০ লাখ পর্যন্ত বাড়ি মেরামতের জন্য প্রত্যেককে ২০,০০০ টাকা দেওয়া-সহ রাজ্যের ত্রাণকার্যে ৬,২৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ (করেছে) রাজ্য।’

কিন্তু সেই ছবি ঘিরে তুমুল বিতর্ক শুরু হয়। অনেকেই দাবি করেন, ছবিগুলি আদতে বিজ্ঞান মঞ্চের। নাম কামানোর জন্য বিজ্ঞান মঞ্চের ছবি ব্যবহার করে রাজ্য সরকারের ঢাক পেটাচ্ছেন ডেরেক। ফেসবুক পোস্টের কমেন্টে রাজর্ষি মজুমদার নামে একজন বলেন, 'সত্যি!! এই ছবিগুলি কে তুলেছেন? আপনি? আপনার দল? কে? আমরা যতটা জানি, ওই ঘূর্ণিঝড় বিধ্বস্ত এলাকাগুলিতে আপনি ও আপনার দল পুরোপুরি নিরুদ্দেশ। এই ছবিতে যাঁরা আছেন, তাঁরা পশ্চিমবঙ্গে বিজ্ঞান মঞ্চের প্রতিনিধি।' মানব বক্সী নামে এক ফেসবুক ব্যবহারকারী বলেন, 'ইশ! শেষে বামেদের ত্রাণের ছবিও চুরি করতে হচ্ছে!' সোনালি দাস শর্মা নামে একজন বলেন, 'শেষে ছবি চুরি? তা চুরি করলেন কেন? মুখগুলো পালটে আঁকিয়ে নিলেই তো পারতেন।'

বিষয়টি নিয়ে বিজ্ঞান মঞ্চের উত্তর ২৪ পরগনা জেলা সংগঠনের তরফে জানানো হয়েছে, তৃণমূল সাংসদ যে ছবিগুলি পোস্ট করেছেন, তার মধ্যে দুটি ছবিতে বিজ্ঞান মঞ্চের প্রতিনিধিরা রয়েছেন। তাঁরা কেউই সরকারের প্রতিনিধি নন। বিজ্ঞান মঞ্চের তরফে নিজ উদ্যোগে হিঙ্গলগঞ্জের মানুষের কাছে খাবার পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে বলে জানানো হয়েছে। সেজন্য কোনও সরকারি সাহায্যও মেলেনি।

তবে বিষয়টি নিয়ে কোনও মন্তব্য করেননি তৃণমূল সাংসদ। ফেসবুক থেকে ছবিগুলিও মুছে দেননি।

বিশেষ বার্তা

পশ্চিমবঙ্গের ত্রাণ তহবিলে দান করুন

WEST BENGAL STATE EMERGENCY RELIEF FUND

(Part of Chief Minister Relief Fund)

https://wbserf.wb.gov.in/wbserf

A/C No: 628005501339

Bank: ICICI Bank

Branch: Howrah

IFSC Code: ICIC0006280

MICR Code: 700229010

SWIFT Code: ICICINBBCTS

বন্ধ করুন