বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > মিলবে ট্রেনের পাস, ১ তারিখ থেকেই হাজিরা শিক্ষকদের, স্কুল-কলেজ খোলা নিয়ে গাইডলাইন
ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই
ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই

মিলবে ট্রেনের পাস, ১ তারিখ থেকেই হাজিরা শিক্ষকদের, স্কুল-কলেজ খোলা নিয়ে গাইডলাইন

  • করোনা আবহে স্কুল-কেলেজে কীভাবে ক্লাস করবেন পড়ুয়া, তার বিস্তারিত গাইডলাইন প্রকাশ করল রাজ্যের শিক্ষা দফতর।

করোনা আবহে স্কুল-কেলেজে কীভাবে ক্লাস করবেন পড়ুয়া, তার বিস্তারিত গাইডলাইন প্রকাশ করল রাজ্যের শিক্ষা দফতর। আগামী ১৬ নভেম্বর থেকে রাজ্যে স্কুল, কলেজ খোলার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার উত্তরকন্যা থেকে এই ঘোষণা করে মুখ্যসচিবকে এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করতে নির্দেশ দিয়েছিলেন। আর এরই মধ্যে করোনা আবহে স্কুল খোলা নিয়ে নির্দেশাবলী তৈরি করে ফেলেছে রাজ্য সরকার। কোভিড সংক্রমণ না ছড়িয়ে কীভাবে ক্লাস হবে স্কুল, কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে? সেই সংক্রান্ত গাইডলাইন প্রকাশ করল শিক্ষা দফতর।

শিক্ষা দফতর জানিয়েছে, ৩১ অক্টোবরের মধ্যে সব স্কুল পরিষ্কারের কাজ শুরু করতে হবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি ১৬ নভেম্বর খুললেও ১ নভেম্বর থেকেই স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে আসতে হবে শিক্ষক ও শিক্ষা কর্মীদের। এদিকে পড়ুয়া, শিক্ষক, শিক্ষাকর্মীদের স্টাফ স্পেশাল ট্রেনের পাস দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছে শিক্ষা দফতর। সংশ্লিষ্ট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধান সেই পাস ইস্যু করতে পারবেন। এদিকে অভিভাবকরা স্কুলে প্রবেশ করতে পারবেন না। মিড-ডে মিলও দেওয়া হবে না স্কুলে। বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হবে মিড-ডে মিলের সরঞ্জাম।

এদিকে জানানো হয়েছে, কোনও খেলাধুলো বা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করা যাবে না। হস্টেল খোলা যেতে পারে। তবে, সেই ক্ষেত্রে কঠোর ভাবে কোভিড বিধি মানতে হবে কর্তৃপক্ষকে। স্কুলের হস্টেলে আলাদা আইসোলেশন রুম রাখা বাধ্যতামূলক হবে। স্কুল-কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ে যাওয়া কোনও পড়ুয়া কোনও গয়না পরতে পারবেন না। স্কুলে এক বেঞ্চে দুই জনের বেশি পড়ুয়া বসতে পারবে না। এদিকে প্রার্থনা হবে ক্লাসরুমেই। এদিকে পানীয় জল বা বই ভাগাভাগি করা যাবে না। এদিকে কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে ক্যাম্পাসে সচেতনামূলক পোস্টার দিতে হবে। বহিরাগতের প্রবেশ নিষিদ্ধ থাকবে ক্যাম্পাসে।

বন্ধ করুন