বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > মাধ্যমিক পাশ করে ডাক্তারি! কোচবিহারে আটক মুন্নাভাই এমবিবিএস
ভুয়ো চিকিৎসকদের রুখতে তৎপর স্বাস্থ্যদফতর (প্রতীকী ছবি)  (HT_PRINT)
ভুয়ো চিকিৎসকদের রুখতে তৎপর স্বাস্থ্যদফতর (প্রতীকী ছবি)  (HT_PRINT)

মাধ্যমিক পাশ করে ডাক্তারি! কোচবিহারে আটক মুন্নাভাই এমবিবিএস

  • শুধু কোচবিহার নয়, অসম থেকেও রোগীরা আসতেন তাকে দেখাতে।

পড়াশোনা মাধ্যমিক পর্যন্ত। তাতে কি! মাধমিক পাশ করে চুটিয়ে রোগী দেখছিলেন এক ব্যক্তি। হাবেভাবে একেবারে পুরোদস্তুর ডাক্তারবাবু। কিন্তু তার কোনও ডাক্তারি ডিগ্রি নেই বলে অভিযোগ। তবে পসার ক্রমে জমে উঠেছিল। প্রত্যন্ত গ্রাম থেকে একেবারে রোগীর লাইন পড়ে যেত চেম্বারে। ভুয়ো ডাক্তারি করার অভিযোগে বুধবার তাকে আটক করেছে পুলিশ।

 

 স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, কোচবিহার শহরেই রাজ রাজেন্দ্রনারায়ণ রোড সংলগ্ন নরসিংহ দিঘির পাশের একটি ক্লিনিকে ডাক্তারির ব্যবসা শুরু করেছিলেন ওই ব্যক্তি। রীতিমতো ভুয়ো সার্টিফিকেটও বানিয়ে ফেলেছিলেন। পরীক্ষা নিরীক্ষার নাম করে রোগীদের কাছ থেকে মোটা টাকাও আদায় করা হত বলে অভিযোগ। একেবারে গোটা একটা চক্র কাজ করছিল শহরে। এবার সেই চক্রের সঙ্গে কারা যুক্ত রয়েছে সেটাই জানার চেষ্টা করছে পুলিশ।

 

তবে শুধু কোচবিহার নয়, অসম থেকেও রোগীরা আসতেন তাকে দেখাতে। বেশ নামও ছড়িয়েছিল এলাকায়। তবে রোগী ধরার একটি অদ্ভূত পদ্ধতি অবলম্বন করত ওই ভুয়ো ডাক্তার। বাস স্ট্যান্ডে ছড়ানো থাকত ওই ভুয়ো ডাক্তারের দালালরা। কোচবিহার বাস টার্মিনাসে কেউ নেমে চিকিৎসকের খোঁজ করলেই দালালরা সরাসরি ওই ভুয়ো চিকিৎসকের কাছে হাজির করত। কমিশনের বিনিময়ে এভাবে রোগী ধরার ফাঁদ তৈরি হয়েছিল। আর সেই ফাঁদে পা দিয়েই প্রতারণার শিকার হতেন রোগীরা। এবার সেই ভুয়ো ডাক্তারকেই আটক করল পুলিশ। এর সঙ্গেই শহরের দুটি প্যাথলজিকাল ল্যাবরেটরিও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। 

 

বন্ধ করুন