বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘দিদির দূত’ গয়ে গ্রামে গিয়ে স্থানীয়দের বিক্ষোভের মুখে তৃণমূল বিধায়ক

‘দিদির দূত’ গয়ে গ্রামে গিয়ে স্থানীয়দের বিক্ষোভের মুখে তৃণমূল বিধায়ক

বিক্ষোভের মুখে তৃণমূল বিধায়ক।

এদিন বিপ্রশেখর গ্রাম পঞ্চায়েতের শ্রীহট্টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিধায়ক পৌঁছলে তাঁকে ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন গ্রামবাসীরা। তাঁদের অভিযোগ, গ্রামে রাস্তা নেই। রাস্তায় আলো না থাকায় সন্ধে গড়ালেই গ্রাম অন্ধকারে ডুবে যায়। গ্রামে কোনও সরকারি টিউবওয়েল নেই।

দিদির দূত হয়ে গ্রামে পৌঁছে নেই রাজ্যের বাসিন্দাদের বিক্ষোভের মুখে পড়লেন বিধায়ক। বৃহস্পতিবার মুর্শিদাবাদের বড়ঞা ব্লকের শ্রীহট্টি গ্রামের বসিন্দারা বিধায়ক জীবনকৃষ্ণ সাহাকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান। তাঁদের অভিযোগ, সরকার কোনও পরিষেবা পান না গ্রামবাসীরা। বিধায়ক জানিয়েছেন, গ্রামবাসীদের অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রীর কাছে পৌঁছে দেব।

এদিন বিপ্রশেখর গ্রাম পঞ্চায়েতের শ্রীহট্টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিধায়ক পৌঁছলে তাঁকে ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন গ্রামবাসীরা। তাঁদের অভিযোগ, গ্রামে রাস্তা নেই। রাস্তায় আলো না থাকায় সন্ধে গড়ালেই গ্রাম অন্ধকারে ডুবে যায়। গ্রামে কোনও সরকারি টিউবওয়েল নেই। গ্রামের মানুষ আবাস যোজনায় বাড়ি পাননি। এমনকী বহু মানুষ সরকারি ভাতায় বঞ্চিত। এই অভিযোগ তুলে বিধায়ককে ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন গ্রামবাসীরা। তাঁদের অভিযোগ, পঞ্চায়েত প্রধানকে জানিয়ে কোনও কাজ হয়নি। অন্য গ্রামের বাসিন্দারা সব সুবিধা পেলেও তারা পাচ্ছেন না।

গ্রামবাসীদের কোনওক্রমে বুঝিয়ে গ্রাম থেকে বেরোন বিধায়ক। এর সাংবাদিকদের তিনি বলেন, অনেক কাজ হয়েছে। তবে কিছু জায়গায় এখনো অভাব অভিযোগ রয়ে গিয়েছে। আমি গ্রামবাসীদের অভিযোগ মন দিয়ে শুনেছি। মুখ্যমন্ত্রীর কাছে সেই অভিযোগ পৌঁছে দেব।

 

বন্ধ করুন