বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > উত্তরবঙ্গের বিক্ষুদ্ধদের কড়া বার্তা, পৃথক রাজ্য প্রসঙ্গে ব্যাকফুটে দিলীপ ঘোষ
বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (ছবি সৌজন্যে পিটিআই) (HT_PRINT)
বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (ছবি সৌজন্যে পিটিআই) (HT_PRINT)

উত্তরবঙ্গের বিক্ষুদ্ধদের কড়া বার্তা, পৃথক রাজ্য প্রসঙ্গে ব্যাকফুটে দিলীপ ঘোষ

  • উত্তরবঙ্গ সফরে গিয়ে পৃথক রাজ্য প্রসঙ্গে মুখ খুলে বিতর্ক তৈরি করেন দিলীপ ঘোষ।

উত্তরবঙ্গ সফরে গিয়ে পৃথক রাজ্য প্রসঙ্গে মুখ খুলে বিতর্ক তৈরি করেছেন দিলীপ ঘোষ। তাঁর বক্তব্যের বিরোধিতায় মুখ খুলেছেন বিজেপির অন্যান্য নেতারাই। এই আবহে নিজের বক্তব্যে সাফআই দিলেন রাজ্য সভাপতি। দাবি করেন, তিনি পৃথক রাজ্যের কথা বলেননি। এদিকে আসন্ন পুর নির্বাচনের আগে উত্তরের গড় ধরে রাখার লক্ষ্যে উত্তরের তিন জেলা প্রধানের সঙ্গে আলোচনা করেন দিলীপ ঘোষ। বৈঠকে ছিলেন তিন জেলার সাধারণ সম্পাদকরাও। 

জানা গিয়েছে শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে কর্মীদের চাঙ্গা হয়ে কাজ করর বার্তা দেন। পাশাপাশি নিষ্ক্রিয় কর্মীদের কড়া বার্তা দিয়ে তিনি জানান, এমন কর্মীদের কোনও পদে রাখা হবে না এরপর থেকে। জেলা থেকে মণ্ডল পর্যন্ত কমিটি পুর্নগঠনের কথাও বলেন দিলীপ ঘোষ। পাশাপাশি দলের স্বচ্ছ ভাবমূর্তি বজায় রাখার নির্দেশ দেন তিনি।

এদিকে শিলিগুড়িতে এক রাখী উত্সবে যোগ দেওয়াক পর পৃথক উত্তরবঙ্গ নিয়ে করা নিজের মন্তব্যের প্রেক্ষইতে সাফাই দেন দিলীপ ঘওষ। বলেন, 'আমি কোনও নতুন রাজ্যের পক্ষে কথা বলিনি। উত্তরবঙ্গের মানুষ নিজেদের বহুদিনের ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। আমাদের নির্বাচিত প্রতিনিধিরা সেকথাই বলেছেন। এর মধ্যে কোনও অন্যায় নেই। বিজেপি কোনও বিভাজনে বিশ্বাস করে না। আমরা গোর্খাল্যান্ডও সমর্থন করিনি। কামতাপুরীও সমর্থন করিনি। আমরা চেয়েছি এখানকার উন্নয়ন হোক। এর জন্যই উত্তরবঙ্গ থেকে দুজন মন্ত্রী করা হয়েছে।'

দু'দিনের উত্তরবঙ্গ সফরে রবিবার জলপাইগুড়ির লাটাগুড়ি থেকে শিলিগুড়ি পৌঁছন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। বিজেপির ছয় নম্বর মণ্ডল কমিটির তরফে আয়োজিত রাখিবন্ধন অনুষ্ঠানে যোগ দেন। সেখানে মহিলা মোর্চার পক্ষ থেকে তাঁকে রাখি পরিয়ে দিনটি উদযাপন করা হয়। দিলীপ ঘোষ ছাড়াও এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শিলিগুড়ি ও মাটিগাড়া-নকশালবাড়ির বিধায়ক শঙ্কর ঘোষ ও আনন্দময় বর্মণ-সহ জেলা নেতৃত্বরা।

বন্ধ করুন