বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > লক্ষ্মীরতনকে বিজেপিতে স্বাগত জানালেন দিলীপ ঘোষ
লক্ষ্মীরতন শুক্লা। ফাইল ছবি
লক্ষ্মীরতন শুক্লা। ফাইল ছবি

লক্ষ্মীরতনকে বিজেপিতে স্বাগত জানালেন দিলীপ ঘোষ

  • এদিন দিলীপবাবু বলেন, ‘আমি তো লক্ষ্মীরতন শুক্লকে বিজেপিতে স্বাগত জানাচ্ছি। আপনার যে স্পিরিট আছে সেটা দেশের কাজে লাগান বিজেপির মাধ্যমে।’

তৃণমূল ও মন্ত্রিত্ব থেকে ইস্তফার পরদিনই ক্রিকেটার লক্ষ্মীরতন শুক্লকে বিজেপিতে স্বাগত জানালেন দিলীপ ঘোষ। বুধবার পুরুলিয়ায় লক্ষ্মীরতনকে বিজেপিতে যোগদানের আহ্বান জানান তিনি। মঙ্গলবার রাজনীতি থেকে সাময়িক দূরে থাকতে চান বলে জানিয়ে তৃণমূল থেকে ইস্তফা দেন লক্ষ্মীরতন। 

এদিন দিলীপবাবু বলেন, ‘আমি তো লক্ষ্মীরতন শুক্লকে বিজেপিতে স্বাগত জানাচ্ছি। আপনার যে স্পিরিট আছে সেটা দেশের কাজে লাগান বিজেপির মাধ্যমে।’

মঙ্গলবার মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি দিয়ে তৃণমূল থেকে ইস্তফা দেন লক্ষ্মীরতন। হাওড়া শহর তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতির পদ থেকে ইস্তফা দেন। সঙ্গে রাজ্যের ক্রীড়াপ্রতিমন্ত্রীর পদ থেকেও ইস্তফা দেওয়ার ইচ্ছাপ্রকাশ করেন। তাঁর ইস্তফা গ্রহণ করে লক্ষ্মীরতনকে মন্ত্রিত্ব থেকে অব্যহতি দেন মুখ্যমন্ত্রী। 

লক্ষ্মীর পদত্যাগের পরই তাঁর বিজেপিতে যোগদান নিয়ে জল্পনা শুরু হয়। সংবাদমাধ্যমের সামনে সরাসরি মুখ না খুললেও ঘনিষ্ঠ মহলে প্রশাসনিক ও রাজনৈতিক একাধিক অভিযোগ তোলেন তিনি। লক্ষ্মীর অভিযোগ, সাড়ে চার বছরের মন্ত্রিত্বে তাঁর কাছে মন্ত্রকের কোনও ফাইল আসেনি। শুধু সই করা ছাড়া মন্ত্রী হিসাবে কোনও কাজ ছিল না তাঁর। দলীয় নেতৃত্বের বিরুদ্ধে লক্ষ্মীর অভিযোগ, গত জুলাইয়ে হাওড়া শহর সভাপতির দায়িত্ব পাওয়ার পর তিনি যে কমিটি গঠনের সুপারিশ দলের শীর্ষ নেতৃত্বকে পাঠিয়েছিলেন তার ওপর এখনো আমল করেনি দল। 

পদত্যাগের পরই লক্ষ্মীর বিজেপিতে যোগদান নিয়ে জল্পনা শুরু হয়। তবে এব্যাপারে এখনো মুখ খোলেননি বাংলার প্রাক্তন ক্রিকেটার। আপাতত কিছুদিন তিনি রাজনীতি থেকে দূরে থাকতে চান বলে জানিয়েছেন। এরই মধ্যে দিলীপ ঘোষের আহ্বানে নতুন করে মাথাচাড়া দিল লক্ষ্মীরতনের বিজেপিতে যোগদানের জল্পনা। তবে এব্যাপারে লক্ষ্মীর প্রতিক্রিয়া এখনো পাওয়া যায়নি। 

 

বন্ধ করুন