বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ফেরাতেন না কাউকে, না ফেরার দেশে ৫ টাকার ডাক্তারবাবু, কাঁদছে কালনা
প্রয়াত গৌরাঙ্গ গোস্বামী (সংগৃহীত)
প্রয়াত গৌরাঙ্গ গোস্বামী (সংগৃহীত)

ফেরাতেন না কাউকে, না ফেরার দেশে ৫ টাকার ডাক্তারবাবু, কাঁদছে কালনা

  • শনিবার সকালে কলকাতার আর এন টেগোর হাসপাতালে তিনি প্রয়াত হন।

গরিবের ভগবান। ৫ টাকার ডাক্তারবাবু। ৭২ বছর বয়সে চিরঘুমে ডাঃ গৌরাঙ্গ গোস্বামী। শনিবার সকালে কলকাতার আর এন টেগোর হাসপাতালে তিনি প্রয়াত হন। নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়েছিলেন ডাক্তারবাবু। এরপর কলকাতাতেই প্রয়াত হলেন কালনা শহরের ফটক দুয়ারের বাসিন্দা চিকিৎসক গৌরাঙ্গ গোস্বামী। একেবারে গভীর শূন্যতা রোগীদের মধ্যে। চিকিৎসা পেশাকে যে এমন মহান ব্রত হিসাবে গ্রহণ করা যায় তা নিজের জীবনের প্রতিটি ক্ষণে প্রমাণ করেছিলেন গৌরাঙ্গ গোস্বামী। ১৯৭২ সালে এমবিবিএস পাশ করেন। প্রতিদিন অন্তত ২০০ জন রোগী দেখা ছিল তাঁর বাধা রুটিন। আর ভিজিট বলতে মাত্র ৫টাকা। যে টাকাতে এক কাপ ভালো চাও জোটেনা আজকাল। আর গরিব মানুষের জন্য নিজের টাকা খরচ করে ওষুধ পথ্যের ব্যবস্থা করতেন তিনি। এককথায় তিনি গরীবের ভগবান। সেই চিকিৎসকই চলে গেলেন সকলকে কাঁদিয়ে।

 

বাবার কথা রেখে চিকিৎসক হয়েছিলেন তিনি। আর জীবনের ব্রত ছিল মানুষের পাশে দাঁড়ানো। আজীবন বামপন্থী রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন তিনি। ২০০০ সাল থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত কালনা পুরসভার চেয়ারম্যানও তিনি ছিলেন। আর চিকিৎক জীবনে নাওয়া খাওয়ার সময় ছিল না তাঁর। সেই কোন সকাল থেকে শুরু হত রোগী দেখা। আর তা কখন থামবে তা জানতেন না কেউই। রাত বিরেতে কেউ বিপদে পড়লে ছুটে যেতেন ডাক্তারবাবু। কারোর কথা ফেরাতে পারতেন না তিনি। সেই ডাক্তারবাবুই চলে গেলেন না ফেরার দেশে।

 

বন্ধ করুন