বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ছেলে আমার খুব শান্তশিষ্ট, এখন কেন যে এত কড়া কথা বলছে? বললেন দিলীপ ঘোষের মা
বাঁ দিকে দিলীপ ঘোষের মা পুষ্পলতা দেবী। ডান দিকে পশ্চিমবঙ্গ বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। 
বাঁ দিকে দিলীপ ঘোষের মা পুষ্পলতা দেবী। ডান দিকে পশ্চিমবঙ্গ বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। 

ছেলে আমার খুব শান্তশিষ্ট, এখন কেন যে এত কড়া কথা বলছে? বললেন দিলীপ ঘোষের মা

  • ঝাড়গ্রাম জেলার গোপীবল্লভপুরের প্রত্যন্ত কুলিয়ানা গ্রামে বসে তিনি জানালেন ছেলের শৈশব ও বেড়ে ওঠার গল্প। সম্প্রতি বিজেপির তরফে প্রকাশিত এক তথ্যচিত্রে ঠাঁই পেয়েছে পুষ্পলতাদেবীর এই সাক্ষাৎকার।

বিতর্কের বরপুত্র তিনি। মুখ খুললেই শাসকের বিরুদ্ধে আগুন ঝরে তাঁর মুখ থেকে। অনেক সময় তাঁর মন্তব্য নিয়ে বিতর্ক পৌঁছে যায় জাতীয়, এমনকী আন্তর্জাতিক স্তরেও। ছেলের মুখে এহেন ভাষায় আক্ষেপ করলেন বিজেপির পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের মা পুষ্পলতা দেবী। ঝাড়গ্রাম জেলার গোপীবল্লভপুরের প্রত্যন্ত কুলিয়ানা গ্রামে বসে তিনি জানালেন ছেলের শৈশব ও বেড়ে ওঠার গল্প। সম্প্রতি বিজেপির তরফে প্রকাশিত এক তথ্যচিত্রে ঠাঁই পেয়েছে পুষ্পলতাদেবীর এই সাক্ষাৎকার। 

সাক্ষাৎকারে দিলীপ ঘোষের মা বলেছেন, ‘চারজন ছেলে কোনওদিন বদমাইশি করেনি। কোনও মারপিট নেই। ভাষাও খারাপ নেই। কোনওদিন কারও সঙ্গে ঝগড়া করেনি। আমার ছেলেগুলো খুব শান্তশিষ্ট। কড়া ভাষা নেই। খারাপ ভাষা নেই। কারও সঙ্গে গণ্ডগোল নেই। বাবাকে খুব ভয় পেত। দিলীপ তালপিঠা খেতে ভালবাসত।‘ 

এর পরই দিলীপবাবুর মন্তব্য ঘিরে সাম্প্রতিক সব বিতর্কে আক্ষেপ করে পুষ্পলতা দেবী বলেন, ‘ছেলে আমার খুব শান্তশিষ্ট, এখন কেন যে এত কড়া কথা বলছে…‘

ছেলের শৈশবের স্মৃতিচারণায় মা বলেন, ‘আট বছর বয়স পর্যন্ত বাড়িতেই থাকত দিলীপ। তার পর মামাবাড়ি চলে যায়। এখনও পশ্চিম মেদিনীপু বা ঝাড়গ্রামে সভা করতে এলে কয়েকঘণ্টার জন্য বাড়িতে এসে ঘুরে যায় সে। ওর জন্য এখন আমি সবার মা। কত লোক আসে খোঁজ নিতে।’

বন্ধ করুন