বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > গাড়িতে বসেই দেখা যাবে ঠাকুর, কলকাতায় অভিনব পুজোর আয়োজন করবে ৩ পুজো কমিটি
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

গাড়িতে বসেই দেখা যাবে ঠাকুর, কলকাতায় অভিনব পুজোর আয়োজন করবে ৩ পুজো কমিটি

  • পরিকল্পনা অনুসারে প্রথমে বাদামতলা আষাঢ় সংঘ, তার পর ৬৬ পল্লি ও শেষে নেপাল ভট্টাচার্য স্ট্রিট দুর্গাপুজো দেখতে পাবেন সাধারণ মানুষ। রাস্তা দিয়ে পূর্ব দিক থেকে পশ্চিমদিকে গাড়ি চালিয়ে গেলেই পর পর দেখা যাবে ঠাকুরগুলি।

করোনা পরিস্থিতির মধ্যে দুর্গাপুজোর আয়োজন করতে অভিনব পথে হাঁটতে পারে কলকাতার তিনটি পুজো কমিটি। সেক্ষেত্রে ১ কিলোমিটার লম্বা রাস্তার দুপাশে পর পর থাকতে পারে নামি পুজো কমিটিগুলির মণ্ডপ। রাস্তা দিয়ে ধীরে ধীরে গাড়ি চালিয়ে গেলেই দেখা হয়ে যাবে সমস্ত ঠাকুর। গাড়ি থেকে নামতেও হবে না দর্শকদের। 

হাতে বাকি আর ২ মাস। ওদিকে রোজই পশ্চিমবঙ্গে তেড়ে ফুঁড়ে উঠছে করোনা। আর তার মধ্যে সব থেকে খারাপ অবস্থা কলকাতার। ইতিমধ্যে সেখানে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৯২৫ পার করেছে। রোজ অন্তত ২০ জন করে করোনায় মারা যাচ্ছেন শহরে। এই পরিস্থিতিতে কী ভাবে সামাজিক দূরত্ব মেনে ঠাকুর দেখার ব্যবস্থা করা যায় তা বেশ কয়েকদিন ধরেই ভাবছিল পুজো কমিটিগুলি। অবশেষে মাথা খাটিয়ে ‘ড্রাইভ ইন’ পুজো আয়োজনের পরিকল্পনা করেছে তিনটি পুজো কমিটি। 

পরিকল্পনা অনুসারে প্রথমে বাদামতলা আষাঢ় সংঘ, তার পর ৬৬ পল্লি ও শেষে নেপাল ভট্টাচার্য স্ট্রিট দুর্গাপুজো দেখতে পাবেন সাধারণ মানুষ। রাস্তা দিয়ে পূর্ব দিক থেকে পশ্চিমদিকে গাড়ি চালিয়ে গেলেই পর পর দেখা যাবে ঠাকুরগুলি।  

তিনটি পুজোকে একই থিমের বাঁধনে বাঁধতে চলেছেন পুজোর উদ্যোক্তারা। তিনটিরই থিম হবে অপুর সংসার। বাদমতলার মণ্ডল সাজবে ‘পথের পাঁচালি’র আদলে। ৬৬ পল্লি সাজবে ‘অপরাজিত’-য় আর নেপাল ভট্টাচার্য স্ট্রিট সাজবে ‘অপুর সংসারে’।

 

বন্ধ করুন