বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > দুয়ারে রেশন ক্যাম্প তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্যার বাড়িতে, গ্রামজুড়ে ব্যাপক আলোড়ন
দুয়ারে রেশন নিয়ে বিতর্ক। ছবি প্রতীকী।
দুয়ারে রেশন নিয়ে বিতর্ক। ছবি প্রতীকী।

দুয়ারে রেশন ক্যাম্প তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্যার বাড়িতে, গ্রামজুড়ে ব্যাপক আলোড়ন

  • এখানে অবশ্য তৃণমূল কংগ্রেসের গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্য অভিযোগ তুলেছেন দলেরই গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্যার বিরুদ্ধে।

এবার দুয়ারে রেশন নিয়ে বিস্তর অভিযোগ উঠেছে। এই প্রকল্পের মাধ্যমে বাড়ি বাড়ি রেশন পৌঁছে দেওয়ার কথা। সেখানে তৃণমূল কংগ্রেসের পঞ্চায়েত সদস্যের বাড়িতে দুয়ারে রেশন ক্যাম্প করা হয়েছিল বলে অভিযোগ। আর তা নিয়েই শোরগোল পড়ে গিয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে দেগঙ্গার চাঁপাতলা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায়।

এখানে অবশ্য তৃণমূল কংগ্রেসের গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্য অভিযোগ তুলেছেন দলেরই গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্যার বিরুদ্ধে। তাতেই আলোড়ন পড়ে গিয়েছে। চাঁপাতলা গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্য হাবিব রেজা চৌধুরীর অভিযোগ, এই গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্যা তাহমিনা বিবি এবং তাঁর স্বামী একে.‌এম কামরুজ্জামান দুয়ারে রেশন প্রকল্প নিয়ে স্বজনপোষণ করেন। নিজের বাড়িতে ৪৮ নম্বর রেশন ডিলারকে দিয়ে দুয়ারের রেশন ক্যাম্প করেছেন এবং সেখানে দুর্নীতি হয়েছে।

এই অভিযোগ সামনে আসতেই আসরে নেমে পড়েছে বিজেপি। বিজেপি নেতা চন্দন দাস বলেন, ‘‌পঞ্চায়েত সদস্যা কীভাবে তাঁর বাড়িতে ক্যাম্প করলেন? দুর্নীতির জন্যই হয়তো নিজের বাড়িতে এই ক্যাম্প করে ছিলেন পঞ্চায়েত সদস্যা।’‌ এই বিষয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্যার পাল্টা সাফাই, ‘‌গোসাইপুর এলাকা খুব বড়। হাফ কিলোমিটার দূরে একটা আইসিডিএস সেন্টারে রেশন দেওয়া হচ্ছিল। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে ৫০০ মিটারের মধ্যে রেশন দিতে হবে। তাই তা সরিয়ে আনা হয়েছে। গ্রামের মানুষের কোনও অভিযোগ নেই। আমাদের দলের লোকেদেরই সমস্যা।’‌

এই ঘটনা নিয়ে আলোড়ন শুরু হতেই দুর্নীতির অভিযোগ তুলতে শুরু করেছেন বিরোধীরা। তবে আর এমন করা হবে না বলে জানিয়েছেন রেশন ডিলারও। তাঁর দাবি, এলাকার মানুষজন রেশন পেয়েছেন। সেখানে দুর্নীতির প্রশ্ন আসছে কেন?‌ চাঁপাতলা গ্রাম পঞ্চায়েতে এখন এই ঘটনা নিয়ে চর্চা তুঙ্গে। দুয়ারে রেশন তৃণমূল কংগ্রেস পঞ্চায়েত সদস্যার দুয়ারে নিয়েই যত কাণ্ড।

বন্ধ করুন