বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Nadia Incident: মামীর সঙ্গে ভাগ্নের অবৈধ সম্পর্কে প্রকাশ্যে চলে এল, নদিয়ায় উদ্ধার নববধূর দেহ

Nadia Incident: মামীর সঙ্গে ভাগ্নের অবৈধ সম্পর্কে প্রকাশ্যে চলে এল, নদিয়ায় উদ্ধার নববধূর দেহ

তরুণ-সোনালি মজুমদার।

তারপরই তাঁরা শান্তিপুর থানায় গিয়ে খুনের অভিযোগ দায়ের করেন। পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে শাশুড়িকে আটক করেছে শান্তিপুর থানার পুলিশ। সোনালির দেহ ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। জামাই–মামীর অবৈধ সম্পর্কের জেরে তাদের মেয়েকে এভাবে বলিদান দিতে হল বলে এখন শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

সম্পর্কে মামী। কিন্তু তাতে কি প্রেম হয় না?‌ এমন প্রশ্ন উঠছে কারণ সেই মামীর সঙ্গেই নিজের স্বামীর বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল। যা নিয়ে প্রতিবাদ করলে কপালে জুটত মারধর। গৃহবধূর স্বামী আবার সম্পর্কে ভাগ্নে। এই পারিবারিক সম্পর্কের মধ্যেই অবৈধ সম্পর্ক মেনে নিতে পারেননি নববধূ। তাই বিয়ের পাঁচ মাসের মাথায় গৃহবধূ আত্মঘাতী হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। যদিও গৃহবধূর বাপের বাড়ির অভিযোগ, তাঁদের মেয়েকে খুন করা হয়েছে। গৃহবধূর শাশুড়িকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ কী তথ্য পেয়েছে?‌ পুলিশ সূত্রে খবর, মৃতের নাম সোনালি মজুমদার। সোনালির সঙ্গে পাঁচ মাস আগে বিয়ে হয়েছিল তরুণের। সোনালির এটা দ্বিতীয় বিয়ে। তরুণেরও এটি দ্বিতীয় বিয়ে। তরুণের সঙ্গে তাঁর মামীর বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক ছিল বলে অভিযোগ জমা পড়েছে। সেটি জানতে পেরে সোনালি প্রতিবাদ করলে তাঁকে মারধর করা হতো। সোনালি এই ঘটনা তাঁর বাপের বাড়ির সদস্যদের জানিয়েছিলেন। ওই গৃহবধূর গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় দেহ উদ্ধার হয়। গৃহবধূর পরিবারের অভিযোগ, তাঁদের মেয়েকে খুন করা হয়েছে। নদিয়া জেলার শান্তিপুরের ফুলিয়ার চাপাতলা সরকারপাড়ার তরুণ মজুমদারের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল। গৃহবধূ সোনালির বাপের বাড়ি উত্তর ২৪ পরগনার বাগদা থানার পারমাদন গ্রামে।

পরিবারের অভিযোগ ঠিক কী?‌ গৃহবধূর পরিবারের অভিযোগ, তাঁদের মেয়েকে খুন করা হয়েছে। ইতিমধ্যে গৃহবধূর পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে শাশুড়িকে আটক করেছে পুলিশ। তবে ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত স্বামী তরুণ মজুমদার পলাতক। খোঁজ নেই ওই মামীরও। গৃহবধূর বাবা বিশ্বনাথ কর্মকার বলেন, ‘‌গতকালই সকাল সাড়ে ১০টা নাগাদ সোনালি ফোন করেছিল। বলেছিল আর বেশিদিন বাঁচব না। এই বলেই ফোন কেটে দেয় মেয়ে। বেলা ১১টা নাগাদ মেয়ের শ্বশুরবাড়ির প্রতিবেশীরা খবর দেন মেয়ে নাকি গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।’‌ তখন সঙ্গে সঙ্গে তাঁরা মেয়ের শ্বশুরবাড়ি রওনা দেন।

তারপর ঠিক কী ঘটল?‌ তারপরই তাঁরা শান্তিপুর থানায় গিয়ে খুনের অভিযোগ দায়ের করেন। পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে শাশুড়িকে আটক করেছে শান্তিপুর থানার পুলিশ। সোনালির দেহ ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। সেখানের রিপোর্টের উপর ভিত্তি করেই পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। জামাই–মামীর অবৈধ সম্পর্কের জেরে তাদের মেয়েকে এভাবে বলিদান দিতে হল বলে এখন শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

বাংলার মুখ খবর

Latest News

আগামিকাল কেমন কাটবে আপনার? কাদের হাতে আসতে পারে টাকা? জানুন ২৩ জুলাইয়ের রাশিফল তিন চারদিনের জ্বর, শিলিগুড়িতে ডেঙ্গি আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু শিশুর, বাড়ছে আতঙ্ক প্রতিবন্ধী শ্যালিকাকে মত্ত অবস্থায় ধর্ষণ, গ্রেফতার বিহারের বাসিন্দা জামাইবাবু বরের মাথা বউ-এর বড়ই প্রিয়! ওভেনে তাই মাথা গরম করতে ব্যস্ত, 'নন্দিনী'র বর মা নেই, আদৃতের জন্য মঙ্গলকামনায় শ্রাবণ মাসের ১ম সোমবার শিবপুজো করলেন কৌশাম্বি! শ্রাবণের প্রথম সোমবারে উপচে পড়া ভিড় তারকেশ্বর থেকে মহাকাল মন্দিরে, চলল পুজো দুরন্ত এক্সপ্রেসের চাকায় আগুন, প্রবল আতঙ্ক যাত্রীদের মধ্যে, দাঁড়িয়ে পড়ে ট্রেন দুবাইতে গ্রেফতার রাহাত ফতে আলি খান? সত্যিটা নিজের মুখে জানালেন পাক গায়ক আইনজীবীকে মারধরের অভিযোগ, প্রতিবাদে থমকে গেল কলকাতা হাই কোর্টের বিচার প্রক্রিয়া বাইডেন প্রেসিডেন্ট পদের দৌড় ছাড়তেই ট্রাম্প তুললেন ‘টাকা ফেরতের’ এর কথা!

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.