বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > চাপ দিয়েছে তৃণমূল, অসুস্থকে ছুটি দিল হাসপাতাল!মাথা ঘুরে পড়লেন কংগ্রেস নেতা
মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ। ছবি সৌজন্য–এএনআই।
মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ। ছবি সৌজন্য–এএনআই।

চাপ দিয়েছে তৃণমূল, অসুস্থকে ছুটি দিল হাসপাতাল!মাথা ঘুরে পড়লেন কংগ্রেস নেতা

  • স্থানীয় সূত্রে খবর, মুর্শিদাবাদ জেলা কংগ্রেসের এসসি মোর্চার সভাপতি হিরু হালদারকে গত কার্ত্তিক পুজোর দিন বেধড়ক মারধর করা হয়েছিল।

চাপ দিয়েছে শাসকদল। আর তার জেরেই রোগী তথা কংগ্রেস নেতাকে তড়িঘড়ি হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দিলেন চিকিৎসকরা। খোদ রোগীই এই অভিযোগ তুলেছেন। এদিকে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েই মাথা ঘুরে পড়ে যান ওই রোগী। এনিয়ে চাপানউতোর তুঙ্গে উঠেছে। স্থানীয় সূত্রে খবর, মুর্শিদাবাদ জেলা কংগ্রেসের এসসি মোর্চার সভাপতি হিরু হালদারকে গত কার্ত্তিক পুজোর দিন বেধড়ক মারধর করা হয়েছিল। হামলার অভিযোগ উঠেছিল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। এরপর মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাঁকে। তাঁর মাথা সহ শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাত লেগেছিল।

এদিকে বুধবারই হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয় তাঁকে। কিন্তু রোগী নিজেই বলছেন, শরীর একেবারেই ভালো নেই। হাসপাতালে আরও কয়েকদিন থাকলে ভালো হয়। কিন্তু তা সত্ত্বেও উপযুক্ত চিকিৎসা না করিয়েই তাঁকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ। এদিকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়ার পর তিনি ফের অসুস্থ হয়ে পড়েন। অগত্যা তাঁকে একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে ভর্তি করা হয়েছে। তাঁর অভিযোগ, তৃণমূলের চাপেই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাঁকে তাড়াহুড়ো করে ছেড়ে দিয়েছে। কংগ্রেস নেতৃত্বের দাবি, দিন কয়েক আগেও যমে মানুষে টানাটানি হচ্ছিল। আর তৃণমূলের চাপে তাকেই ছেড়ে দিল হাসপাতাল। সরকারি হাসপাতালে যাতে বিরোধীরা চিকিৎসা না পান তার ষড়যন্ত্রও করছে শাসকদল। তবে এনিয়ে শাসকদলের নেতৃত্ব বা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি।  

 

বন্ধ করুন