বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > পুজোর পর বাংলায় ফের বাজবে নির্বাচনী ডঙ্কা, ৪ আসনে উপনির্বাচনের দিন ঘোষণা কমিশনের
নির্বাচন কমিশনের দফতর। ফাইল ছবি। সৌজন্যে–এএনআই।
নির্বাচন কমিশনের দফতর। ফাইল ছবি। সৌজন্যে–এএনআই।

পুজোর পর বাংলায় ফের বাজবে নির্বাচনী ডঙ্কা, ৪ আসনে উপনির্বাচনের দিন ঘোষণা কমিশনের

  • ভবানীপুর ছাড়া চার কেন্দ্রের উপনির্বাচন এখনও বাকি। সেই কেন্দ্রগুলির নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণা করল নির্বাচন কমিশন।

আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর রাজ্যেক একটি কেন্দ্রে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ভবানীপুরের নির্বাচনের পর পরই পুজোর আমেজে ডুববে বাংলা। এরপর পুজো শেষ হতেই ফের ভোট রাজ্যে। ভবানীপুর ছাড়া চার কেন্দ্রের উপনির্বাচন এখনও বাকি। সেই কেন্দ্রগুলির নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণা করল নির্বাচন কমিশন। খড়দা, শান্তিপুর, দিনহাটা ও গোসাবায় ৩০ অক্টোবর নির্বাচনের দিন ঘোষণা করা হয়েছে। এই কেন্দ্রগুলিতে ভোটের গণনা হবে ২ নভেম্বর।

রাজ্যে মোট সাত কেন্দ্রে উপনির্বাচন বাকি ছিল। যদিও, এই সাতটি কেন্দ্রের মধ্যে মুর্শিদাবাদের জঙ্গিপুর ও সামশেরগঞ্জে সাধারণ নির্বাচন হবে। কারণ, ভোটগ্রহণের আগেই ওই দুই কেন্দ্রের প্রার্থী মারা যান। সেক্ষেত্রে দুই কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ উপনির্বাচনের আওতায় পড়ে না। এই দুই কেন্দ্র ও ভবানীপুর উপনির্বাচনের দিন ঘোষণা আগেই করা হয়েছে। ৩০ সেপ্টেম্বর ভোট রয়েছে এই তিন কেন্দ্রে। যার প্রচারও গতকাল শেষ হয়ে গিয়েছে।

এই আবহে আজ সকালে নির্বাচন কমিশনের তরফে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানায়, পশ্চিমবঙ্গ-সহ যে রাজ্যগুলিতে নির্বাচনের দিন ঘোষণা করা হল, সেখানকার করোনা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখার পরই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে জাতীয় নির্বাচন কমিশন। উল্লেখ্য, পশ্চিমবঙ্গ-সহ মোট ১৪টি রাজ্যে উপনির্বাচনের নির্ঘণ্ট ঘোষণা করা হয়েছে। এছাড়া তিনটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলেও ভোট হবে একইদিনে।

নির্বাচন সংক্রান্ত নির্দেশিকা জারি হবে ১ অক্টোবর। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন ৮ অক্টোবর। মনোনয়ন স্ক্রুটিনি করে দেখা হবে ১১ অক্টোবর। আর মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন ১৬ অক্টোবর। ৩০ তারিখ ভোট ও গণনার দিন ঠিক করা হয়েছে ২ নভেম্বর। এদিকে প্রচার সংক্রান্ত বেশ কয়েকটি ক্ষেত্রে বিধি নিষেধ আরোপ করেছে নির্বাচন কমিশন। তারকা প্রচারের ক্ষেত্রে ৫০ শতাংশ অথবা ১০০০ জন থাকতে পারবে। সাধারণ প্রচারের ক্ষেত্রে ৫০ শতাংশ বা ৫০০জন লোক থাকতে পারবে সব ক্ষেত্রে মানতে হবে কোভিড বিধি।

বন্ধ করুন