বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > পাচারের সময় বিপন্ন প্রজাতির ৮ পাখিকে উদ্ধার BSF-এর
হেলমেটেড কুরেসো (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
হেলমেটেড কুরেসো (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

পাচারের সময় বিপন্ন প্রজাতির ৮ পাখিকে উদ্ধার BSF-এর

  • পাখিগুলির লাতিন আমেরিকার কলম্বিয়া এবং ভেনেজুয়েলার জঙ্গলে পাওয়া যায়।

ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত দিয়ে পাচারের সময় আটটি বিপন্ন প্রজাতির হেলমেটেড কুরেসোকে উদ্ধার করল বিএসএফ। তবে পাচারকারীরা পালিয়ে গিয়েছে।

বিএসএফ সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার রাতে গাইঘাটা তেঁতুলবেড়িয়ার কাছে সীমান্তে টহল দিচ্ছিলেন বিএসএফ জওয়ানরা। সেই সময় কাঠের বাক্স নিয়ে দু'জন বাংলাদেশ থেকে ভারতে আসার চেষ্টা করছিল। তাদের ধাওয়া করেন বিএসএফ জওয়ানরা। তাড়া খেয়ে কাঠের বাক্স দুটি ফেলে পালিয়ে যায় পাচারকারীরা। সেই বাক্স থেকে আটটি হেলমেটেড কুরেসো উদ্ধার করা হয়।

বিএসএফের দক্ষিণবঙ্গ সীমান্তের ডেপুটি কম্যান্ডাট সন্তোষ কুমার সিং বলেন, 'দুটি বাক্সে কমপক্ষে আটটি হেলমেটেড কুরেসো ছিল। সেগুলি বিদেশি এবং বিপন্ন প্রজাতির। আগেও আমরা হেলমেটেড কুরেসো উদ্ধার করেছি।'

ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন ফর কনজারভেশন অব নেচার (আইএনইউসি)-র লাল তালিকা অনুযায়ী, কুরেসো বিপন্ন প্রজাতির এবং লাতিন আমেরিকার কলম্বিয়া এবং ভেনেজুয়েলার জঙ্গলে পাওয়া যায়। সারা বিশ্বে ৩,০০০-রও কম পূর্ণবয়স্ক কুরেসো রয়েছে। বাসস্থান হারানোয় এবং শিকারের জেরে তাদের সংখ্যা ক্রমশ কমছে।

সীমান্তরক্ষী আধিকারিকরা জানিয়েছেন, তাঁরা রাজ্যের বন দফতরের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন। পাখিগুলিকে আলিপুর চিড়িয়াখানায় পাঠানো হবে। এক উচ্চপদস্থ আধিকারিক বলেন, ‘আমাদের বিশ্বাস পোষ্য হিসেবে রাখার জন্য পাখিগুলিকে ভারতে পাচার করা হচ্ছিল।’

বন্ধ করুন