বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > কোভিড রুখতে সরকারি নির্দেশকে বুড়ো আঙুল, কালনার স্কুলে চুপি চুপি অফলাইন পরীক্ষা!
সরকারি নির্দেশকে অমান্য করে স্কুল খোলার অভিযোগ

কোভিড রুখতে সরকারি নির্দেশকে বুড়ো আঙুল, কালনার স্কুলে চুপি চুপি অফলাইন পরীক্ষা!

  • কোথাও বই দেওয়ার কথা বলে, কোথাও আবার ২৬শে জানুয়ারি প্যারেড অনুশীলনের জন্য ডাকা হয়েছিল।

করোনা সংক্রমণ রুখতে রাজ্য জুড়ে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। খোদ মুখ্যমন্ত্রী এনিয়ে নির্দেশ দিয়েছিলেন। তবে এবার সেই করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও পূর্ব বর্ধমান জেলার কালনার একটি বেসরকারি ইংরাজি মাধ্যম স্কুলে চুপি, চুপি পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছিল বলে অভিযোগ। সরকারি কোভিড বিধিকে উপেক্ষা করে এভাবে লুকিয়ে পরীক্ষা নেওয়ার অভিযোগকে কেন্দ্র করে প্রশ্ন উঠছে। এদিকে স্কুলে ছাত্র ছাত্রীরা ঢুকতে পারে বলে গেটে নোটিশ টাঙিয়ে দেওয়া হয়েছিল বলে দাবি উঠেছে। ছাত্রছাত্রীদের একাংশের দাবি, এদিন দ্বাদশ শ্রেণির মৌখিক পরীক্ষা ছিল। মৌখিক পরীক্ষার জন্য ডাকা হয়েছে। ২২জনকে স্কুলে ডাকা হয়েছিল। 

করোনা সংক্রমণ রুখতে রাজ্য জুড়ে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। খোদ মুখ্যমন্ত্রী এনিয়ে নির্দেশ দিয়েছিলেন। তবে এবার সেই করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও পূর্ব বর্ধমান জেলার কালনার একটি বেসরকারি ইংরাজি মাধ্যম স্কুলে চুপি, চুপি পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছিল বলে অভিযোগ। সরকারি কোভিড বিধিকে উপেক্ষা করে এভাবে লুকিয়ে পরীক্ষা নেওয়ার অভিযোগকে কেন্দ্র করে প্রশ্ন উঠছে। এদিকে স্কুলে ছাত্র ছাত্রীরা ঢুকতে পারে বলে গেটে নোটিশ টাঙিয়ে দেওয়া হয়েছিল বলে দাবি উঠেছে। ছাত্রছাত্রীদের একাংশের দাবি, এদিন দ্বাদশ শ্রেণির মৌখিক পরীক্ষা ছিল। মৌখিক পরীক্ষার জন্য ডাকা হয়েছে। ২২জনকে স্কুলে ডাকা হয়েছিল। 

|#+|

অপর এক দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র বলেন, আমরা স্কুলকে অনুরোধ করেছিলাম। আমাদের প্র্যাক্টিকাল একেবারেই হয়নি। সেকারণেই স্কুলে এসেছি। তবে স্কুল কর্তৃপক্ষ এনিয়ে মুখ খুলতে চায়নি। এদিকে অন্যান্য একাধিক স্কুলেও এদিন ছাত্রছাত্রীদের ডাকা হয় বলে অভিযোগ। কোথাও বই দেওয়ার কথা বলে, কোথাও আবার ২৬শে জানুয়ারি প্যারেড অনুশীলনের জন্য ডাকা হয়েছিল। এমনটাই জানিয়েছে স্কুলে আসা ছাত্রছাত্রীদের একাংশ। তবে প্রশাসন ও শিক্ষা দফতরের পক্ষ  থেকে জানানো হয়েছে, কেন এই ধরনের ঘটনা হয়েছে তা দেখা হচ্ছে। আগামীকাল থেকে যাতে ছাত্রছাত্রীরা স্কুলে না আসে সেটা দেখা হবে। কোথাও যাতে জমায়েত না হয় সেটাও দেখা হচ্ছে। 

 

বন্ধ করুন