কুমারী পুজোয় ফতিমা (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
কুমারী পুজোয় ফতিমা (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

CAA-এর বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন কুমারী রূপে পূজিত ফতেমার পরিবারের

  • গত দুর্গাপুজোয় যাবতীয় ধর্মীয় গোঁড়ামি দূরে সরিয়ে রেখে ফতিমাকে ‘কালিকা’ রূপে পুজো করেছিল বাগুইআটির দত্ত পরিবার।

কুমারী পুজোয় ‘কালিকা’ রূপে পূজিত হয়েছিল কামারহাটির ফতেমা। সেই ফতিমার পরিবার এবার সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের (সিএএ) বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে পিটিশন দাখিল করল। বছর চারেকের ফতিমার মামা মহম্মদ আহমেদ নয়া নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে এই আবেদন করেছেন।

আরও পড়ুন : 'শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের ফলে দেশের গণতান্ত্রিক মূল আরও গভীরে পৌঁছাবে,' বললেন প্রণব

গত দুর্গাপুজোয় যাবতীয় ধর্মীয় গোঁড়ামি দূরে সরিয়ে রেখে ফতিমাকে ‘কালিকা’ রূপে পুজো করেছিল বাগুইআটির দত্ত পরিবার। বার্তা দিয়েছিল ধর্মীয় সম্প্রীতির। সেই সুরেই ফতিমার মামা জানান, নয়া নাগরিকত্ব আইন ও জাতীয় নাগরিক পঞ্জির ফলে মানুষের মধ্যে বিভেদ তৈরি হবে। যা তাঁদের পক্ষে মেনে নেওয়া সম্ভব নয়। আহমেদের কথায়, 'সমাজে বিভেদ তৈরি করবে সিএএ ও এনআরসি। আমরা সবাই এদেশের নাগরিক। এত বছর পর কীভাবে মানুষ নিজেদের শিকড়ের প্রমাণ দেবেন?'

ফতিমা (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
ফতিমা (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

আরও পড়ুন : এনআরসি হলে কী কী নথি লাগবে? জানাল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক

আহমেদের দাবি, এনআরসির ফলে দেশজুড়ে মহিলাদের উপর ব্যাপক প্রভাব পড়বে। তাঁর কথায়, 'এনআরসির ফলে মহিলারা সবথেকে বেশি প্রভাবিত হবেন। তাঁদের কম বসয়ে বিযয়ে দেওয়া হয়। তাঁরা বৈষম্যের শিকার হন। কিছু পরিবার মহিলাদের নামে সম্পত্তি কেনে বা ব্যবসায় মহিলার নাম নথিভুক্ত করেন। ফলে আইনি কাগজপত্র দেখানো তাঁদের পক্ষে সমস্যার।'

আরও পড়ুন : কোন শর্তে ভারতীয় নাগরিকত্ব, জানালেন কেন্দ্রের উচ্চপদস্থ আধিকারিক

নয়া নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে বুধবার পর্যন্ত এরকম ১৪০টির বেশিও আবেদন সুপ্রিম কোর্টে জমা পড়েছে। এনিয়ে আহমেদের আইনজীবী তথা কলকাতার প্রাক্তন মেয়র বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য বলেন, 'শুনানির জন্য আহমেদের আবেদন তালিকাভুক্ত হয়েছে। আদালত জানিয়েছে, সবকটি আবেদন একসঙ্গে শুনবে সাংবিধানিক বেঞ্চ।'

আরও পড়ুন : NPR-NRC-এর মধ্যে ফারাক কী? কেন বিরোধিতা রাজ্যের? জানুন খুঁটিনাটি


বন্ধ করুন